Header Ads

Breaking News
recent

চিন্ময় ঘোষ | তিনটি কবিতা

Michil মিছিল কবিতা প্রতিবাদ

।। ক্ষমতার মধুমাস।।

মধুমাস হাঁসফাঁস আগুনের ধুম​
বুদ্ধিওয়ালাদের চোখে শীতঘুম
পাশ ফিরে শোয় তারা আরাম যাপনে
মিছে কেন নাড়াচাড়া মাটির কাঁপনে?
চোর-বাটপারদের অবাধ চারণ
মানুষের ফোঁস করা নেহাতই বারণ
সুবোধের বোধ গেছে কারো গেছে জাত
প্রশ্নহীন আনুগত্যে কেউ কুপোকাত​
মায়ের চোখের জলে ভিজছে মানুষ​
মাটির সে চূড়ামণি কথার ফানুস​
কেউ যদি কিছু বলো ফাটকেই বাস
নয়তো হতেও পারো লহমায় লাশ!

​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​
।। সময় দুঃসময় ।।



দ্যাখ, এখন কেমন গায়ে সইছি সব
দুয়োর ধরে বসে বসে সময় দিচ্ছে​
নতুনতর পাঠ, আচার বিচার 
পাল্টে ফেলে শিখে যাচ্ছিও বেশ​
যাই ঘটুক কালোসাদা গায়ে মাখিনা তেমন​
বরং সন্ধ্যে হলেই তোফা সময় কাটে
ঘন্টাখানিক হট্টমেলার গুঁতোগুঁতির হাটে।
দ্যাখ, এতো পাঁক এতো জঞ্জাল দুর্গন্ধে ম'ম
দান তোষণ খয়রাতি আর লুঠ বখরার খেলা​ ​
আনন্দে মন লুফে নিচ্ছে বেশ
তারই মধ্যে ডুবছি ভাসছি কেমন অক্লেশে
রাগ বা ক্ষোভের তিক্ত বিকার​
রেখেছি সিন্দুকে​
নিরুত্তাপের মুখোশে বাঁচি নতুন সহবতে
এও তো আছি বেশ জঞ্জালময় স্নানে​ ​
এও তো আছি বেশ বিগলিত প্রাণে!

​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ 
।। ত্রস্ত রাজ্যপাট।।


হুজুগ নাটক কলকাঠিতে​
তোর জুড়ি কেউ আছে?​
তাই সদা ভয় এই বুঝি কেউ​
পেটেন্ট কাড়লো পাছে!

দখলদারির রক্ত হোলি​
খেলবি কত আর
ও তুই রানি হাত পোড়ালি​
দলবাজি জোরদার।

যেই না কিছু ঘটালো তোর​
ভাই গুণধর সব
চক্রান্তের গল্প ফাঁদিস
উচ্চে তুলে রব।

নিজেকে তুই ভাবিস রানি
ছন্নছাড়ার হাটে
তোরই যত নাচনকোঁদন
ত্রস্ত রাজ্যপাটে!

কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.