উজ্জ্বল সামন্ত | বসন্ত

∆ বসন্ত

বাসন্তী রঙের দোলা পলাশের শাখায় শাখায়,
আবিরের রঙ আকাশ বাতাস ছুঁয়ে মনকে রাঙায়।
ভালোবাসায় আলাদা রঙ নেই, ভালোবাসা সাতরঙা,
রঙ কখনো মনে কখনো দেহে মিশে গিয়ে মন ছোঁয়া।

রঙ যখন ছোঁয় তোমার গাল চিবুক ঠোঁট বিভিজিকা,
আঙুলের স্পর্শে যেন আগুনের রঙ লেলিহান শিখা।
লজ্জায় মুখ লাল কখন যেন নিজেকেই সঁপে দেওয়া,
ভালোবেসে বাহুডোরে দুজন স্বপ্নে হারিয়ে যাওয়া ।

তোমার আলিঙ্গন স্পর্শেই যেন তরঙ্গের ঢেউ খেলে,
রঙ তো অনুঘটক নিঃশ্বাসের ঝড় মাতলো শরীরে।
বসন্ত ই কি প্রেমের ঋতু, ফাগুনের আগুন জাগে,
হলুদ শাড়ি পাঞ্জাবির ভীড় বসন্ত আজি উৎসবে।

বসন্তেই পলাশ ফোটে সারি সারি শাখায় শাখায়,
কোকিলের কুহুতান গুঞ্জন তোলে প্রেমের আশায়।
প্রকৃতি রঙ ঢালে ফুলের পাপড়িতে রামধনু রাঙায় আকাশ,
উড়ো চিঠি লেখা আছে তোর নামে বইবে ঝোড়ো বাতাস!

লাল আবীর সিঁদুরে হয়ে ছোঁবে ঠিক তোমার সিঁথি,
দুচোখ ভরে উৎসুক হয়ে আমি তৃপ্তির সুখ খুঁজি।
পলাশে সাজিয়েছ নিজেকে​ হাতে কানে মালায় খোঁপায়,
কতশত পলাশ বিবর্ণ, শুকিয়েছে দেখ দুধারে রাস্তায়!


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

নবীনতর পূর্বতন