রত্নদীপা দে ঘোষ | দুটি কবিতা

Sobdermichil

✓ আমসবুজে মাতোয়ারা


মাধ্যাকর্ষণের বীজ ফেটে বেরিয়ে আসছে বর্ষাতুমুল।

তুমুলটুকু। আষাঢ় বিভঙ্গে জারিয়ে রাখুন। বর্ষা ঢেলে নিন দেরাজের আধারে।

মিশিয়ে দিন কোয়েলের পিউ। কাহারবায় মেশামেশি হোক শ্রাবণের ডুব।

ঘড়ি ধ’রে ঠিক পাঁচমিনিট ভরাডুবি। তারপর, একটু টই আর একগোছা টম্বুর।

অপেক্ষা করুন। মিশ্রণটিকে ডেকে নিন চোখে। করিয়ে দিন আলাপ, ছলাতজলের সাথে।

দেখুন আর অনুভব করুন আমসবুজ অক্ষরেখাটি মিড়। মুখরা আর অন্তরার গন্তব্যে পৌঁছে

প্রাণের বান্ধবকে ডেকে নিন প্রাণে। তারপর? মনে প্রাণে এক চুমুক ।


✓ লেমনতাজের তরজা

মন কী চাইছে? নম্রনদীর উপত্যকায় একটু উচ্ছল হ’তে?

ইচ্ছে করছে টিয়াদ্বীপের গোধূলি? ইচ্ছে করছে এক গেলাস লেমন-তরজা?

জানি বন্ধু জানি। এমন নিভৃত সপ্তক, মন তো হরষিত হবেই।

ঊষাপাত্রে জড়ো করুন প্রণয়জাত শিহরণ। কিঞ্চিৎ সাওন-কণার দে’দোল।

মনে রাখবেন, দুলুনির পরিমান যাতে কিছুতেই এক গেলাসের বেশি যেন না হয়।

মনিপদ্মের পালক ঢেলে দিন আকুল আহ্বানে। কর্ণফুলীকে প্রকাশ করুন স্রোতস্বিনীর দিগন্তে।

সদ্যজাত চুম্বকের অনুরণন শুনতে পাচ্ছেন? ঢেউ? রাগরাগিণীর মালঞ্চ? মনে রাখবেন,

রূপ আর অরূপ, এই দু’জনই স্বাদের কোরক। খিলখিলিয়ে ওঠা লেমন-লেবুর জেসমিন।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

নবীনতর পূর্বতন