বাদল রায় স্বাধীন


■ মায়ের পূঁজোয় দেবি তুষ্ট


​মদ্যপানে মাতাল হয়,মায়ের পূঁজো করতে,
খবর শুনি আবার কেউ,নেশা করে মরতে।

জিবন্ত মাকে খাবার দেয়না,তাড়ায় দূর দূর,
দেবী মায়ের জন্য কাঁদে,নরাধম সে অসুর।

শক্তির পূজা করতে নাকি,শক্তি যোগায় মদ,
বিসর্জনে বুকটা ভাসায়,যে ছেলেটা বদ।

মাকে দেয়না ঔষধ পথ্য,দেবির জন্য ঢালি,
জন্মদাত্রী মাকে দেয়,কথায় কথায় গালি।

মাকে রাখে বিছানাহীন ,দেবির জন্য আসন,
লুটিয়ে পড়ে প্রনাম করে,নিজের মাকে শাসন।

দেবিকে কয় মাগো তুমি,বছর ধরে থাকো,
বউকে বলে বুড়িটাকে,আলগা ঘরে রাখো।

মায়ের জন্য পথ্য কিনতে,টাকার অভাব পরে,
দেবির জন্য লক্ষ খরচ,সে ছেলেটা করে।

দেবির চাওয়া তুলসি পাতা, নয়তো পাতা বেল​
তবু আমরা ঢালি দেবীর, তেলা মাথায় তেল।

আসল মাকে কষ্ট দিয়ে,করলে দেবি পূজা,
নরকে তুই নিশ্চিত যাবি,হিসাব অতি সোজা।

জ্যান্ত মায়ের পূজা করো,সময় থাকতে তাই,
ইহকাল​ আর পরকালে,শান্তি পাবি ভাই।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

নবীনতর পূর্বতন