x

প্রকাশিত ৯৬তম সংকলন

শব্দের মিছিল শুরু থেকেই মানুষের কথা তুলে ধরতে চেয়েছে, মানুষের কথা বলতে চেয়েছে। সাহিত্যচর্চার পরিধির দলাদলি ও তেল-মারামারির বাইরে থেকে তুলে আনতে চেয়েছে অক্ষরকর্মীদের নিজস্বতা। তাই মিছিল নিজেও এক নিজস্বতা অর্জন করতে পেরেছে, যা আমাদের সম্পদ।

সমাজ-সচেতন প্রকাশ মাধ্যম হিসেবে শব্দের মিছিল   প্রথম থেকেই নানা অন্যায়, অবিচার, অসঙ্গতির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছে। এই বর্ষপূর্তিতে এসেও, সেই প্রয়োজন কমছে না। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরবর্তী বিভিন্ন হিংসাত্মক কাণ্ড আমাদের যথারীতি উদ্বিগ্ন করছে। যেখানে বিরোধী দলের হয়ে কাজ করা বা বিরোধী দলকে সমর্থন করার অধিকার এখনও নিরাপদ নয়, সেখানে যে গণতন্ত্র আসলে একটি শব্দের বেশি কিছু নয়, সেকথা ভাবলে দুঃখিত হতেই হয়। ...

চলুন মিছিলে 🔴

আকাশ নীল বিশ্বাস

sobdermichil | ডিসেম্বর ২৩, ২০২০ |
আকাশ নীল বিশ্বাস sobdermichil


■ অবগাহন
আকাশ নীল বিশ্বাস


তব চুম্বনে, ওঠে এলোকেশী ঝড়
অনুভব করি এক দূরাগত নৈশব্দের স্বর,
শান্ত-স্নিগ্ধ-সংযত, অথচ অপরিণত,
অনেকটা দ্রাক্ষাফলের অকালপক্কতার মতো।
তব পদচারণা, সুললিত ছন্দবদ্ধ গুঞ্জন
হৃদমাঝারে বাজে প্রতিক্ষণ, ক্ষণেক্ষণ।
জানি, তুমি বারাঙ্গনা,
সমাজের চোখে বহুভোগ্যা, অনাকাঙ্খিতা
তবু, বিশ্বাস করো
আমার হৃদয়তন্ত্রীতে, ইতস্তত বিক্ষিপ্ত আগাছার মতো,
পরিকীর্ণতাময় হয়ে আছো তুমি।
তোমার বচনসুধায়, বাহুমূলের ইঙ্গিতে, ক্ষীণকটির ললিতকলায়, গ্রীবাঞ্চলের আহ্বানে, চক্ষুপল্লবজাত বরাভয়ে -
তৃষাতুর হয়ে ওঠে মন...
খোঁজে অন্তহীন এক সুগভীর পরিতৃপ্তি।
তোমার অবহেলা, অবমাননার রোষানল জাগায় হৃদয়ে...
তব উর্বরা বসুধায়,
বিচরণ করে চলে যায় কত কীট, পশুপক্ষী।
কত পূর্ণাঙ্গ রোহিত, প্রত্যহ
অবগাহন করে, তব নাভিমূলজাত স্রোতস্বিনী ঝর্ণায়, পান করে তব শৃঙ্গার রস।
নেপথ্যচারী আমি, সেই বামাচারীদের মাধুকরীতায়,
রোষানলে দ্বগ্ধ হই ক্রমাগত।
তুমি দাও বাধা, ভিক্ষা করো আমার নিষ্পৃহতা,
ক্রোধান্বিত অসহায়তায়, বন্য হিংস্রতায়, গর্জে উঠি আমি
ধিক্কার দিই, তোমার সর্বংসহা অবরুদ্ধ চেতনাকে...
তুমি করোনা প্রতিবাদ, নীরবে শুনে যাও শুধু, আহত কৃষ্ণসারের ন্যায়, নতনেত্রে।
তোমায় স্তব্ধবাক দেখে, ব্যথাতুর চিত্তে ভাবি,
সমভিব্যাহারে, যাবো একদিন, তোমায় নিয়ে, অলকানন্দার তীরে, পবিত্র সঙ্গমস্থলে...
শুনেছি, জাহ্নবীস্রোত মুছে দেয় বহু কলঙ্ক,
আবার ভাবি, সত্যিই কি তুমি কলঙ্কিনী?
তুমি তো অপাপবিদ্ধা
ভাগ্যদোষে পরিত্যক্তা - জানিনা কোন অপরাধে এথেনার শাপগ্রস্ত হয়ে
রূপসী হয়েছিল সর্পকেশী,
মাথা পেতে নিয়েছিল দেবরোষ
শিকার হয়েছিল বিকৃত লালসার...
যখন পান করি তব শৃঙ্গার রস,
ডুব দিই এক মোহিনী মাদকতায়,
কালোত্তীর্ণ হয়ে ওঠে, চিরন্তন দুটি তরতাজা প্রাণ
আবাহন করে এক স্বর্গীয় প্রেমমত্ততাকে
আদিম উদ্দামতায় শঙ্খ লাগে দুটি বিষধর ফণাসর্পের,
মৃগনয়নী, ত্রস্ত তোমার দুচোখ দেখে ভাবি -
কেমন অনুভূতি হয়েছিল মেডুসার?
এথেনার মানমন্দিরে, পসাইডনের বক্ষলগ্না হয়ে?


​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​ ​
Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন


বিজ্ঞপ্তি
■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.