x

প্রকাশিত

​মহাকাল আর করোনাকাল পালতোলা নৌকায় চলেছে এনডেমিক থেকে এপিডেমিক হয়ে প্যানডেমিক বন্দরে। ওদিকে একাডেমিক জেটিতে অপেক্ষমান হাজার পড়ুয়ার ভবিষ্যৎ।​ ​দীর্ঘ সাতমাসের এ যাপন চিত্র মা দুর্গার চালচিত্রে স্থান পাবে কিনা জানি না ! তবে ভুক্তভোগী মাত্রই জানে-

​'চ'য়ে - চালা উড়ে গেছে আমফানে / চ'য়ে - কতদিন হাঁড়ি চড়েনি উনুনে / চ'য়ে - লক্ষ্মী হলো চঞ্চলা / চ'য়ে - ধর্ষিতা চাঁদমনির দেহ,রাতারাতি পুড়িয়ে ফেলা।

​হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষটি লালমার্কার দিয়ে গোল গোল দাগ দেয় ক্যালেন্ডারের পাতায়, চোদ্দদিন যেন চোদ্দ বছর। হুটার বাজিয়ে শুনশান রাস্তায় ছুটে যায় পুলিশেরগাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স আর শববাহী অমর্ত্য রথ...। গঙ্গা দিয়ে বয়ে গেছে অনেকটা জল, 'পতিত পাবনী গঙ্গে' হয়েছেন অচ্ছুৎ!

এ কোন সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছি আমরা?

ছবিতে স্পর্শ করুন

শব্দের মিছিল

অতিথি সম্পাদনায়

সমীরণ চক্রবর্তী

বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

তারাশংকর বন্দ্যোপাধ্যায়

sobdermichil | সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ | | মাত্র সময় লাগবে লেখাটি পড়তে।

তারাশংকর বন্দ্যোপাধ্যায়

পথ হারিওনা

তুমি পথ হারাওনি তো?

পথ হারিওনা। তোমার পরিশ্রমী পা যেখান থেকে হাঁটতে শুরু করে আর যেখানে গিয়ে পৌঁছাতে চায়, তার মধ্যে যে দুস্তর ব্যবধান, যে জানার সে জানে। যে স্বপ্নের সন্ধানে তুমি ঘরছাড়া হও আর যে পিছুটানে আবার ঘরে ফিরে আসো, তাও কারও অজানা থাকার কথা নয়।

যেটা জানা নেই তা হলো, তোমার ঘর বার দুইই সমান। তুমি জ্বালা ধরিয়ে দেওয়া রোদ্দুরে পুড়তে পুড়তে রাস্তায় গলানো পিচ ঢালো বলে আমরা কত স্মুদলি পেরিয়ে যেতে পারি। তুমি আর সেই রাস্তায় কোথায় যাও? তোমাকে ফেলে সভ্যতা এগিয়ে যায়। তুমি নিরাপত্তার তোয়াক্কা না করে ইট বালি রড সিমেন্টের মাখামাখি জীবন কাটিয়ে দাও ছোট্ট ঝুপড়িতে, তাই হাইরাইজের হু হু হাওয়ায় কত সোনার সংসারে আনন্দের আলো জ্বলে ওঠে। তোমার ফ্যাকাশে হাত কত যে রঙিন আঁচড় জানে! কত যে মুগ্ধতা এঁকে দেয়!

তুমি যেন এক বেমানান উপদ্রব। কোথাও শান্তি নেই তোমার। না ঘরে, না বাইরে। কোথায় যাবে এখন? নতুন কোনও সুখের সন্ধান তুমি জানো কি?

পথের সন্ধানেই বরং যাও। তোমার এক চিলতে ঘরে বড্ড দমবন্ধ অন্ধকার। আলোর ঠিকানা জানতেও তোমাকে পথেই বেরতে হবে। একান্ত নিজস্ব পথে। ঠিকানা হারিয়ে যায় যাক, পথ হারিওনা।

■ লেখক পরিচিতি

Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.