x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০১৯

মুস্তাফিজুর রহমান

sobdermichil | এপ্রিল ১৫, ২০১৯ | | মিছিলে স্বাগত
মুস্তাফিজুর রহমান
বৃষ্টি মাখা মেয়ে

অসংখ্য বিচ্ছেদের ফুল ফুটে আছে
গাছে - গাছে । গাছ জুড়ে
কিছু বিচ্ছেদের ফুল
বৃষ্টিতে ভিজে যায় অনন্তকাল -

শেষ চিঠিটা ভাসিয়ে দিয়েছি নৌকায় করে
আঁচড়-কাটা নদীর পর নদী
বুকের পর বুক জুড়ে
আজও বৃষ্টি ফেরী করে নদীর ঘাটে ঘাটে ।

এসো নদী - তোমায় ভালোবাসি
এসো নদী - তোমায় পাড়ে ঘর বাঁধি
একলা সূর্যাস্তের রঙে এবং আকাশ ভাগাভাগি
যদি চৌকাঠে বৃষ্টি এসে দাঁড়ায়
বলবো ; কেমন আছো, বৃষ্টি ভেজা মুখ -?
কেমন আছো,বৃষ্টি মাখা মেয়ে -?

মনে পড়ে, কথা দেওয়ার কথা -
সারা জীবন শুধু বৃষ্টি চেয়ে চেয়ে
মনে পড়ে, ওগো বৃষ্টি মাখা মেয়ে ...


বৃষ্টি পোহাই

আমার সীমানা ছাড়িয়ে উড়ে যায়
নীলকণ্ঠ পাখি -
দু'পয়ে ঝুমুরের তিরস্কার
চৈত্রের উত্তাপে ধূসর ধূলিকনা

এইমাত্র একটা ক্যাকটাস
যন্ত্রণার কাঁটা সরিয়ে ফোটাল ফুল
গোপন ইচ্ছার রঙে রঙিন

আমার বুকটা মেঘলা
অনেক দিনের মেঘ জমে ক্ষত
দগদগে

আয় , বৃষ্টি পোহাই -

পুরনো চিঠি থেকে ঝরে পড়ে কিশলয়

না বলা কথার কাটাকাটি
প্রেমের নামতায়
বিদ্যুৎ-রেখা ভর্তি ব্ল্যাকবোর্ড

তীব্র ভালবাসা সাজিয়ে সাজিয়ে
রাঙামাটি তাজমহল

আমরা ভিজে চলেছি কল্পনায়
আজীবন ...

বৃষ্টি বৃষ্টি খেলা

বকুল বকুল ঝরা ফুল
দু'একটা পাতা
বৃষ্টি ফুল ঝরছে
বৃষ্টি কুড়িয়ে নাও

কারও হৃদয় শূন্য
ওর বুকটা ফাঁকা
আমার শরীর বৃষ্টিময়
বৃষ্টি এসে জড়াও

আমি আঁকি জলছবি
তোমার আঁচল ধোয়া
ঝগড়াটে বৃষ্টি
একদিন সর্বনাশা

আসবে বলে
আর এলো না
সারাটা দিন গেল
নষ্ট পাখির বাসা

দেবদারু ছায়া ছায়া
ভেজা দাঁড়কাক
নির্জন স্টেশন
দূরের বৃষ্টিবেলা

উষ্ণ চা-এর ভাঁড়
প্রেমের আপেক্ষা
শরীর জুড়ে কেবল
বৃষ্টি বৃষ্টি খেলা...


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.