x

আসন্ন সঙ্কলন

গোটাকতক দলছুট মানুষ হাঁটতে হাঁটতে এসে পড়েছে একে অপরের সামনে। কেউ পূব কেউ পশ্চিম কেউ উত্তর কেউ দক্ষিণ... মাঝবরাবর চাঁদ বিস্কুট, বিস্কুটের চারপাশে লাল পিঁপড়ের পরিখা। এখন দলছুট এক একটা মানুষ এক হয়ে হাঁটছে চাঁদ বিস্কুটের দিকে। আলাদা আলাদা মানুষ এক হয়ে হাঁটছে সারিবদ্ধ পিঁপড়েদের বিরুদ্ধে। পথচলতি যে ক'জনেরই নজর কাড়ছে মিছিল তারাই মিছিল কে দেবে জ্বলজ্বলে দৃষ্টি। আগুন নেভার আগেই ঝিকিয়ে দেবে আঁচ... হাত পোহানোর দিন তো সেই কবেই গেল ঘুচে, যেটুকু যা আলো বাকী সবটুকু চোখে মেখে চাঁদ বিস্কুট চেখে চেখে খাক এই মিছিলের লোক। মানুষ বারুদ কিনতে পারে, কার্তুজ ফাটাতে পারে, বুলেট ছুঁড়তে পারে খালি আলো টুকু বেচতে পারেনা... এইসমস্ত না - বেচতে পারা সাধারণদের জন্যই মিছিলের সেপ্টেম্বর সংখ্যা... www.sobdermichil.com submit@sobdermichil.com

অতিথি সম্পাদনায়

মৌমিতা ঘোষ

শব্দের মিছিল

অতিথি সম্পাদনায়

মৌমিতা ঘোষ

শনিবার, জানুয়ারী ২৬, ২০১৯

শুভব্রত লাহিড়ী

sobdermichil | জানুয়ারী ২৬, ২০১৯ |
শুভব্রত লাহিড়ী / ১ মুঠো প্রলাপ
কবি আবৃত্তিকার শুভব্রত লাহিড়ী সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে একটি চেনা নাম । এবারের 'শব্দের মিছিল' এর 'একমুঠো প্রলাপ' বিভাগে আমাদের অতিথি । ঋজু দীর্ঘ ছায়ার মানুষটি নাটক নিয়েও কাটিয়েছেন অনেকটা সময় । একসময় রায়গঞ্জ 'ছন্দম" এ অভিনয় করেছেন বেশ কিছু নাটকে । ছোট্ট মফঃস্বল শহর যখন বড় পরিসরের সাংস্কৃতিক মানচিত্রে জায়গা করে নেয় অবশ্যই উপেক্ষা করা যায় না এর ভূমিপুত্রদের অবদান । আসুন , আলাপ করুন , ভালো লাগবে জেনে ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  কবি শুভব্রত লাহিড়ী নাকি আবৃত্তিকার শুভব্রত লাহিড়ী , আপনার প্রথম পছন্দ কোনটি , আমরা তো দুইই একসাথে উচ্চারণ করি ।

শুভব্রত লাহিড়ী- একদম ঠিক । আমি দুটোতেই স্বচ্ছন্দ । আসলে মনের মধ্যে বুদবুদ কাটে যে ভাবনা তা প্রকাশের আকূলতা , যদি কোন কবির রচনায় পেয়ে যাই তবে আবৃত্তি , আর না পেলে কলম ধরি |  তাই দুটোই চলছে । 

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  ইংরেজির শিক্ষক হিসেবে যেমন তেমনি আবৃত্তির শিক্ষক হিসেবেও অনেক ছাত্র ছাত্রী তৈরী করেছেন । কোনটা বেশি আনন্দ দিয়েছে ? কেন ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  আসলে দু' ক্ষেত্রেই তো কাজটা শিক্ষাকারকের । দুটোতেই সমান আন্তরিকতা থাকে । তবে একটা কথা না বলে পারছি না - আজকাল দেখছি সব কিছুতেই একটা চালাকি করে বৈতরণী পার হবার প্রবণতা শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রকট। সে ভাষা শিক্ষা হোক বা আবৃত্তি। এটা খুব ভাবনার এবং কষ্টেরও ।

একটা সময় পর্যন্ত যেমন বিষয় দক্ষ ছাত্র তৈরী করেছি তেমনি আবৃত্তি শিল্পীও তৈরী হয়েছে । এখন তেমন হচ্ছে না । তাই আনন্দ দু' ক্ষেত্রেই বেশ কিছুটা কমেছে ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  আপনি যখন শুরু করেছিলেন রায়গঞ্জের মত ছোট শহরে বাচ্চাদের এত ব্যাপক আবৃত্তি শেখানোর ক্রেজ ছিলনা অভিভাবকদের মধ্যে । এখন সকলেই প্রায় শিখছে । পরিবর্তনটা কি সত্যি শিল্পের প্রসার নাকি কিছুটা হুজুগ ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  খুব ভালো প্রশ্ন । যখন শুরু করেছিলাম তখন আমাদের শহরে স্কুলের অনুষ্ঠানে আর পাড়ার রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তীর দিনে কেবল আবৃত্তি হতো । যদিও আমি কখনো অংশ নিইনি । তবে নাটক করতাম । শুনেছি কেউ কেউ নাকি আবৃত্তি করতেন । আমি তাদের কখনো দেখিনি বা শুনিনি । সে অর্থে , বিনয়ের সাথে বলি , আমার হাতেই এই শহরে আবৃত্তি শিল্পের সুচনা ।

চল্লিশ বছর আগে আমাদের শহরে না পাওয়া যেত কবিতার বই না ছিল সংগ্রহ করার মত অর্থ । ঘরে ঘরে রেকর্ড প্লেয়ার বা টেপ রেকর্ডারও থাকতো না । একটা সাধারণ উচ্চারণ দেখিয়ে দেবার লোক মেলা ভার   তাই আজকের সময়ে এসে ভাবি , কি কঠিন আকাঙ্খা ছিল। মানে , অসাধ্য সাধনের মত । ওই যে বললাম আকাঙ্খা ... তাই , আকাঙ্খার সাথে প্রচেষ্টা দুয়ে মিলে সবটা হয়েছে  ।

ক্রেজের কথা বলছ , কথাটা ঠিক , অভিভাবকের ক্ষেত্রে । এটা মনে হয় ' ব্রততী' কে সামনে রেখে হয়েছে । আট দশ বছরের ছেলে মেয়েদের মায়েরা ' শাড়ি ' বা ' মেঘবালিকার রূপকথা ' শেখাতে চায় , তার নিজের লেভেলের কবিতা ছেড়ে। এটা ওই ক্রেজের কারণে হয় । আরেকটা কারণ শিল্পটার প্রচার ও প্রসার ক্ষেত্রের অনেক বৃদ্ধি ঘটেছে বলেই আগ্রহ বেড়েছে যাকে হুজুগ মনে হতে পারে ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ - কবি হিসেবে কি অ্যাডভান্টেজ পেয়েছেন আবৃত্তিকার হবার ফলে ?  বিখ্যাত সব কবির কবিতা দ্বারা প্রভাবিত হয়ে যাবার ভয় ছিল না ? সারাক্ষণই তো কবিতায় বাস করছেন ।

শুভব্রত লাহিড়ী -  কবিতা লেখার সময় কবির মেন্টাল ম্যাপটা একটু ভিন্ন রূপ নেয় । আর পাঁচটা সাধারণ মানুষের সাথে মেলে না । এটা আমার ধারণা আর কি । অন্যের কবিতা পড়ার সময় সেই ম্যাপটা আমি অনুভবে দেখতে পাই । ফলে লেখা বা আবৃত্তি করা দুটোই যেন সমান ভাবে আমাকে তৃপ্তি দেয় । কবিতার জগৎ কে জানতে কবিতা তো অনেক পড়েছি , তাই আমার পছন্দের কবিদের থেকে কি লিখবো আর কি লেখা উচিত এই বোধটা জেগেছে । কেমন ভাবে লিখব সেটা আমার শিল্প জ্ঞান । শুধু সাবধান থাকি যেন দূর্ঘটনা না ঘটে ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ - আধুনিক কবিতায় কি ছন্দকে উপেক্ষা করার একটা প্রবণতা দেখা যাচ্ছে ? অনেকে বলছেন আবৃত্তিযোগ্য কবিতা নাকি আধুনিক কবিতা হিসেবে তেমন দড় নয় । আপনার কি মত ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  ছন্দকে উপেক্ষা করার প্রবণতা তো রবীন্দ্রনাথ স্বয়ং শুরু করেছিলেন । গদ্য ছন্দে রচনা 'জীবনধর্মী' হয়ে ওঠে আর পদ্যছন্দে (!) লেখাতে কৃত্রিমতা আসে । তাই তো মিল ছাড়া গদ্যে লেখা শুরু হয় । ছন্দবদ্ধ কবিতা ছিল রূপময় । সে রূপ গদ্য কবিতার নেই বটে তবে বোধের গভীরতা অনেকগুন বেড়েছে । ইদানিং অবশ্য অনেকেই আবার ছন্দে লিখছেন । এটা ভালো বৈচিত্রের কারণে ।
আর আধুনিক কবিতা আবৃত্তিগুণে দর কিনা  আজকাল যে সব কবিতা আবৃত্তি হচ্ছে সেসব শুনলেই তা বোঝা যায় । যদিও অনেক না কবিতাও আবৃত্তি হচ্ছে । সে জন্যেই ' বাচিক শিল্পী ' শব্দের জন্ম । আর সুবোধ সরকারের 'শাড়ি' বা জগন্নাথ চক্রবর্তীর 'পার্ক স্ট্রীটের স্ট্যাচু' র মত কবিতা ছন্দে লিখলে কতটা তরল হয়ে পড়ে আবৃত্তিকার নিশ্চয়ই বুঝবেন ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  সম্প্রতি এক বিখ্যাত কবি বলেছেন আবৃত্তি নাকি শিল্প নয় । কি বলবেন আপনি ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  হ্যাঁ , শ্রদ্ধেয় কবি মৃদুল দাশগুপ্ত এমন মন্তব্য করেছেন । তা সেটা তো কোন একজনের ব্যক্তিগত মন্তব্য । এমন মন্তব্যের জন্য তো কোথাও জবাবদিহি করার দায় থাকে না । আমার মতে সব শিল্পের মত আবৃত্তিরও একটি প্রকরণ আছে তাই এটি 'শিল্প' সে আপনি মানুন বা না মানুন ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ - আপনার এখন পর্যন্ত প্রকাশিত কাব্যগ্রণ্হ কয়টি ও কি কি ? কোথায় পাবে বইগুলি উৎসাহী পাঠক ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  না বই প্রকাশের বিষয়টা ততটা প্রাধান্য দিয়ে দেখিনি । তবে দু' চারটে ছোট বই একক ও যৌথ ভাবে প্রকাশিত হয়েছে । যেমন -

ক ) বিবাহের বত্রিশ সিক্কা ( রম্য কবিতা )
খ ) মজার ছড়া মজায় গড়া ( চারজনের সাথে )
গ) আবৃত্তির ছড়া  ও কবিতা ( সম্পাদনা )
ঘ) প্রিয় নারী কালিদহে ভাসাস আমাকে ( প্রেমের কবিতা )
ঙ ) কবি - কবিতা - আবৃত্তি ( আবৃত্তি শিক্ষার্থীদের জন্য , যন্ত্রস্হ )
চ ) হো চি মিনের 'প্রিজন ডাইরি ' অনুবাদ ( প্রকাশ আসন্ন )

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  হঠাৎ আবৃত্তিকার হতে গেলেন কেন ? কার অনুপ্রেরণায় ? কোন প্রথাগত তালিম নিয়েছেন ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  আসলে কিছু হতে চেয়ে হয়েছি এমন নয় । আমার বড়দা রবীন্দ্রনাথের 'আফ্রিকা ' কবিতাটি জোরে জোরে পড়তেন । শুনে শুনে ছোট বয়সেই স্মৃতিতে বসে যায় । তার পরে হায়ার সেকেন্ডারী পাশ করে ৭৬/ ৭৭ সাল নাগাদ বন্ধুদের তাড়নায় একটা প্রতিযোগিতায় যাওয়া ও প্রথম হওয়া । তার পর আর কি ! ৭০ দশকের আগুনমুখো কবিতাগুলো ছিল প্রেরণা । কোন প্রথাগত শিক্ষা ছিল না । তবে শম্ভু মিত্রের ও প্রদীপ ঘোষের উচ্চারণ অনুসরণ করি । কবিতার অমোঘ টানে আবৃত্তি শিল্পী হয়ে গেলাম । একটা কথা এখানে বলি , কবিতা বলার অপরাধে চাকু র মুখে যেমন পড়েছি তেমনি জীবনের প্রথম চাকরির সুযোগ থেকে ( প্যানেলে প্রথম হওয়া সত্ত্বেও ) বঞ্চিত হয়েছি । এমন অভিজ্ঞতা রাজনীতির কারণে অনেকের আছে কিন্তু কবিতা আবৃত্তি করার কারণে কারো আছে কিনা জানি না । আসলে কবিতাতেই আমার রাজনীতি ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  কবি হিসেবে ঠোঁটকাটা । প্রতিষ্ঠানের চোখরাঙানির ভয় নেই ? পুরস্কার চাই না ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  পুরস্কার ? না , কোন সরকারী পুরস্কার পাবার জন্য কবিতা লিখিনা বা আবৃত্তি করি না । পুরস্কারে কোন এ্যলার্জি নেই । অনেক বেসরকারী পুরস্কারও পেয়েছি । কিন্তু সে পুরস্কার " আমি" তে "আমি" থেকেই যেন পাই , " তুমি" হয়ে নয় ।

শর্মিষ্ঠা ঘোষ -  যুক্ত আছেন আবৃত্তি শিক্ষার একটি বিখ্যাত প্রতিষ্ঠানের সাথে । একদা করেছেন নাটকও । লেখালেখি তো আছেই । আপনি মাল্টি টাস্কার । যাতে হাত দিয়েছেন সোনা ফলিয়েছেন । পেয়েছেন মানুষের ভালোবাসা । এসবই কি প্রতিভা , পরিশ্রম কেবল ? খুব ঘষলে মাজলেও কি দ্বিতীয় 'শুভ দা ' হওয়া সম্ভব , সেই বিশেষ ভাগ্য ফ্যাক্টরটি ছাড়া ?

শুভব্রত লাহিড়ী -  করেছি অনেক কিছুই এটা ঠিক । মানুষের ভালোবাসাও পেয়েছি অনেক । " কন্ঠস্বর" আবৃত্তি মঞ্চ গড়েছি । চেষ্টা চালাচ্ছি নতুন মুখ উঠে আসুক । এটুকুই তো করতে পারি । আর স্বপ্ন দেখি একদিন আমাকে ছাপিয়ে অনেক বড় হয়ে উঠবে আমার ' উত্তরাধিকার ' ।


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.