x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

শনিবার, জুন ৩০, ২০১৮

কোয়েলী ঘোষ

sobdermichil | জুন ৩০, ২০১৮ | | মিছিলে স্বাগত
কোয়েলী ঘোষ
মেঘদূত  আলোকে 

ওগো মেঘ , যাও উড়ে যাও সেই অলকাপুরী
নিয়ে যাও আমার তৃষিত বিরহী প্রাণের বার্তা ,
আমি এক অভিশপ্ত যক্ষ ,আছি একা , বড় একা ।

এই নাও কুরচিফুলের অর্ঘ্য , এই মৃদুমন্দ বাতাসে ,
ভেসে যাও রামগিরি পর্বত থেকে সুদূরে ---
সাথে সাথে তোমায়  ঘিরে যাবে বলাকার দল ,
সূর্যের সাতটি রঙের বিচ্ছুরণে রামধনু আঁকা গায় ।

ওগো মেঘ , পেরিয়ে যেও আম্রুকুট পর্বত , নিও উষ্ণতা ,
বারিধারা হয়ে পড়েছিলে ঝরেছিলে যে অরণ্যের দাবদাহে ,
সেই অরণ্যানী দেবে ছায়া , আশ্রয় । ঢেলো জল তৃষিত প্রাণে ।

বিন্ধ্যপর্বতের নিচে বয়ে চলেছে রেবা নদী কুলকুল ,
বরিষণে রিক্ত হয়ে জলপানে পূর্ণ করবে সে ।
যেতে যেতে পথে কদম্ব ফুল সৌরভে দেবে ভরিয়ে ,
নদীর তীরে তীরে ভুঁইচাপা ফুল , ছুটে যাবে হরিণ
কেকাধ্বনিতে পেখম তুলে স্বাগত জানাবে ময়ূরদল ।

কত বন ,উপবন পেরিয়ে বিদিশা রাজ্যে করবে প্রবেশ ,
বেত্রবতীর স্বাদু জলপানে হবে তৃপ্ত ।তীরে যূথিকার ঝাড় ,
নদীর ভ্রূভঙ্গি , বধূদের ভ্রুলতাবিলাস দেখতে দেখতে
উজ্জয়িনীর অট্টালিকা ক্রোড়ে নিও বিশ্রাম ।

,ভেসে যেও মেঘ  তুষার হিমালয়ের পথে
কৈলাসের মানস সরোবরের বুকে , পার্শ্বে অলকাপুরী ,
কুলকুল নিরবধি বয়ে চলে ভাগীরথী ।

সেখানে আমার প্রিয়া আছে বসে , করতলে ঢেকে মুখ্ ,
রুক্ষ কেশ ,মলিনবসনা , সিক্ত দুটি আঁখি ,
অবহেলায় পড়ে তার বীণা ,গায়নি গান ।

ওগো মেঘ , দূত হয়ে যাও তার কাছে
জানিও - কুশলে আছি আমি ,সন্তপ্ত প্রাণ ,
আঁকি প্রিয়ার মুখ ,মুছে যায় নয়নের জলে --
জাগরণে ,স্বপ্নে হয় প্রিয়ার সাথে মিলন ।

ওগো মেঘ , আর চার মাস প্রতীক্ষার শেষে
 ফিরব আমি তার কাছে  , বোলো -রেখ বিশ্বাস ।
আসার সময় একটি  স্মৃতিচিহ্ন নিয়ে এসো তার ।

ও মেঘ দূত  ,দাও জল এ  চাতক প্রাণে
তুমি পূর্ণ হয়ে ফেরো দেশ থেকে দেশান্তরে ,
তোমার বিদ্যুত প্রিয়ার সাথে যেন না হয় বিচ্ছেদ ।




Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.