x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

মঙ্গলবার, এপ্রিল ০৩, ২০১৮

সুশান্ত কুমার রায়

sobdermichil | এপ্রিল ০৩, ২০১৮ | | মিছিলে স্বাগত
দোতরার ডাং এ ভাওয়াইয়া গান
ভাওয়াইয়া গান-১

কথা ও সুর- সুশান্ত কুমার রায়
তাল-কাহারবা

ওকি হায়রে পরাণের বন্ধু মোর
না যান ছাড়ি মোক
অচিন দ্যাশে ।।

কোড়া কান্দে কুড়ির নাগিয়া
মোর অভাগিনীর কান্দে হিয়ারে,
মনটা কান্দে মোর
ডুকুরিয়া ডুকরিয়া ।।

তোমরা  যদি মোক যান ছাড়ি
দিবানিশি কান্দিম মরিরে,
না  যান ছাড়ি মোক
মন গেইছে মোর আউলিয়া।।

ও কি হায়রে পরাণের সখা মোর
আর বুঝি আর না হয় দেখা,
মোক ছাড়ি ক্যানে তোমরা
যান রে চলিয়া।।



ভাওয়াইয়া গান-২

কথা-সুশান্ত কুমার রায়
সুর-সুভাষ চন্দ্র রায়
তাল-ঝুমুর

একনা ছাওয়ার পেকনা বেশি
কতা মিছা নোয়ায়,
মোর নুন আনতে পানতা ফুরায়
ছাওয়াক মানায় যে না যায় ।।

ছাওয়াক করং কি এলা
দেওয়ানী বড়ই যে জ্বালা,
যখন যেটা বায়না ধরে-
আনিয়া দ্যাও অ্যালায়।।

বউও করে ঝগড়াঝাটি
কিসের সংসার কিসের মাটি,
এ ভিট্যাত মোক -
থাকপ্যারে  না মনায়।।

কাক কং আর দুখের কতা-
কাইয়ো না বোঝে মনের ব্যাথা,
মনটায় কয় কাজিয়া করি
থাকোং যায়া জংলোত পড়ি।।

ভাওয়াইয়া গান-৩

কথা-সুশান্ত কুমার রায়
সুর-তমিরি বরণ দাস (আলিপুর দুয়ার)
তাল-কাহারবা

ও মুই কি কং আর
দুখেরো কতা,
ওরে মোর কতার বলে
দামে নাই এলা।।

মুই আছিনুং রূপেরো  মাইয়্যা-
দূর দ্যাশ থাকিয়্যা যায়্যা
হাজার টাকা পণ দিয়্যা
মোক সুন্দরী  করিলেনও বিয়্যা।।


নয়া বউ গুল্যার হইচে যেমন-
কতার বাহাদুরী
মুই বুড়িটা উস্কে ঝামেলা
কারো কতা আর  না পাং খুলি।।

গলার হার বেচেয়া মুই-
পরিছংও ছেড়া শাড়ি
বুড়ি বয়সে আজো মুই
অবোলা নারী।
ভাবের পতধিন ভাবেতে
মোক ফ্যালেয়া গেইলেন যে
আর কতকাল থাকিম একেলা।।


ভাওয়াইয়া গান-৪

কথা-সুশান্ত কুমার রায়
সুর-সুভাষ চন্দ্র রায়

ইহকালরে কান্ডারী তুমি
দয়াল পরকালরে গতি
কৃপা করো অধম আমায়
চরণ তলে হয় গতি।

সংসারে সগাই পর রে ভাই
আপন নোয়ায় কাঁইয়ো,
স্বার্থ বিনা আছে শুধুই
এক-মাও জননী মাওয়ো।

নদী বিনা সাগর যেমন
পায়না রে ভাই যৌবন,
নারীর জীবন ধন্য হয় ভাই
পায় যদি স্বোয়ামীর মন।

তোমার তরে এই বাসনা
চাইনা কিছু আর-
চরণ তলে ঠাঁই দিয়ো
এই অধম-অভাগার।


ভাওয়াইয়া গান-৫

কথা ও সুর-সুশান্ত কুমার
তাল-ঝুমুর

বাংলা ভাষায় মায়ের গান
ভাওয়াইয়া হইলো দ্যাশের মান ।
আরে সেই ভাষাতেই গাইলো গান
দোতরা বাজাইল কানাইলাল,
ও মোর প্রাণের ভাওয়াইয়া ॥

ভাওয়াইয়া গানে মাতিল শ্রোতা
নমর উদ্দিন বাজাইল দোতরা ।
আরে সেই ভাষাতেই গাইলো গান
দোতরা বাজাইল কানাইলাল,
ও মোর প্রাণের ভাওয়াইয়া ॥

রফিক, বরকত, শফিক , সালাম
ভাষার জন্যে দিলে প্রাণ ।
আরে সেই ভাষাতেই গাইলো গান
কছিমুদ্দিন, আব্বাস, হরলাল-
ও মোর প্রাণের ভাওয়াইয়া ॥


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.