Header Ads

Breaking News
recent

রহিমা খাতুন


 পাখি 

আমি এক নরম পাখি ছিলাম,
তুমি ছিলে বৃক্ষ বৃহৎ।
আমায় আশ্রয় দিতে শুধু,
আর তাতেই ছিলে মহৎ।
একদিন আমায় নিয়ে যেতে চাইলে,
অচেনা এক দেশ।
বললাম- শিকড় বাকড় উপড়ে ফেলে,
তুমি কেমনে পাও আবেশ?
বললে তুমি, " আমি বৃক্ষ তো নয়,
আসলে এক পাখি"।
সেই যে শুরু আমার উড়ান,
তোমাতে অন্ধ আঁখি।

চললো এমন বছর কতক,
কাটলো সময় কাল।
বুকের বাঁধন শক্ত করার,
পড়লো যে আকাল।
এপৃথিবী দেখনদারীই,
তাতেই সকল সার।
আমার তোমার আপন হওয়া,
থাকবে নাকো আর।
তারপর- একদিন বললে,
তুমি নাকি পুরোপুরি পাখি হতে পারোনি।
ভাবো! একলা আকাশ, এত্ত বড়,
সন্ত্রস্ত প্রাণ, আগে কেন বলোনি?

তবে, কথা যে দিয়েছিলে,
ফেলবে নাকো আমায়।
দেখ, কেমন করে প্রাণ,
বুক ধড়ফড়, ডানা ঝাপটাই।
এদিক ওদিক কত আকুতি,
ফসকে কোথায় যাই।
এমন করে মাঝ গগনে,
কাকেই বলো পাই।

মন বলে ওঠ চুপটি করে,
একটা যদি ছোট্ট পাখি হতো,
বেশ লাগতো বটে।
আকাশ  আমার ভরিয়ে দিত,
রং, তুলি আর পটে।


 রহিমা খাতুন





কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.