x

আসন্ন সঙ্কলন

গোটাকতক দলছুট মানুষ হাঁটতে হাঁটতে এসে পড়েছে একে অপরের সামনে। কেউ পূব কেউ পশ্চিম কেউ উত্তর কেউ দক্ষিণ... মাঝবরাবর চাঁদ বিস্কুট, বিস্কুটের চারপাশে লাল পিঁপড়ের পরিখা। এখন দলছুট এক একটা মানুষ এক হয়ে হাঁটছে চাঁদ বিস্কুটের দিকে। আলাদা আলাদা মানুষ এক হয়ে হাঁটছে সারিবদ্ধ পিঁপড়েদের বিরুদ্ধে। পথচলতি যে ক'জনেরই নজর কাড়ছে মিছিল তারাই মিছিল কে দেবে জ্বলজ্বলে দৃষ্টি। আগুন নেভার আগেই ঝিকিয়ে দেবে আঁচ... হাত পোহানোর দিন তো সেই কবেই গেল ঘুচে, যেটুকু যা আলো বাকী সবটুকু চোখে মেখে চাঁদ বিস্কুট চেখে চেখে খাক এই মিছিলের লোক। মানুষ বারুদ কিনতে পারে, কার্তুজ ফাটাতে পারে, বুলেট ছুঁড়তে পারে খালি আলো টুকু বেচতে পারেনা... এইসমস্ত না - বেচতে পারা সাধারণদের জন্যই মিছিলের সেপ্টেম্বর সংখ্যা... www.sobdermichil.com submit@sobdermichil.com

অতিথি সম্পাদনায়

মৌমিতা ঘোষ

শব্দের মিছিল

অতিথি সম্পাদনায়

মৌমিতা ঘোষ

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৭

অনিন্দিতা মন্ডল

sobdermichil | ডিসেম্বর ২৮, ২০১৭ | |
অনিন্দিতা মন্ডল 
প্রথম প্রকাশ হয় শারদীয় সানন্দাতে। আর তারপরই বই আকারে প্রকাশ পায় এই নভেলাটি । 'কলাবতী কথা' । লেখিকা ইন্দিরা মুখোপাধ্যায় নিয়মিত লেখায় আছেন । তাঁর বিভিন্ন গল্প , রম্যরচনা , ভ্রমণ সাহিত্য , এবং গবেষণাধর্মী লেখা, বাণিজ্যিক ও সবুজপত্র , দুয়েতেই দেখতে পাওয়া যায় । এই উপন্যাসটি প্রধানত একটি আদিবাসী মেয়ের পাওয়া না পাওয়ার কাহিনী হিসেবে আঁকা হলেও উপন্যাসের মূল চরিত্র হলো আদিবাসী সমাজের বহুবর্ষব্যাপী অত্যাচার ও অবিচারের শিকার হয়ে থাকা এবং তা থেকে অদ্ভুত ভাবে একটি উত্তরণ। উড্ডীন হওয়া সেই স্বপ্নে, যা দেখতে চাওয়া তাদের কাছে অপরাধের সমান । অথচ আমরা অস্বীকার করলেও সত্যিটা মিথ্যে হয়না । বাংলার প্রাচীন সভ্যতা সংস্কৃতি সঙ্গীত শিল্পকলা এইসব ভূমিপুত্র ও ভূমিকন্যাদের দান। অশ্পৃষ্য দলিত বলে দেগে দেওয়া, ব্রাহ্মণ্য ধর্মের নিষ্ঠুর ক্ষমতার ব্যবহারে আমরা ভুলতে বসেছি যে, নাগরিক সভ্যতায় মুখ ঢেকে রাখা আমরা এক অতি সম্পন্ন সভ্যতার উত্তরাধিকার বহন করি । 

'কলাবতী কথা' । লেখিকা ইন্দিরা মুখোপাধ্যায়

গল্প শুরু হয় লতু বা লতিকা নামক প্রান্তিক মানুষটির জীবন সংগ্রাম দিয়ে। যার পুত্রবধূ কনক একজন শিল্পী। পটচিত্র আঁকায় পারদর্শী সে । আস্তে আস্তে সে শিখে নেয় পটের সঙ্গে পটকথা গাওয়া । এও যেন তার সহজাত । 

"মনসা জগতে গৌরী জয় বিষহরি , পদ্মফুলে জন্ম মা তোর মনসা কুমারী " 

কনক গিয়েছে কুরুম্ভেরায় । মেলায় বাংলার গ্রামীণ শিল্পের বেসাতি । সেই বেসাতিতে আদিবাসী মেয়ে কলাবতীও পণ্য হয়ে যায় । কনকের কী অসীম সাহস আমরা দেখতে পাই । 

কলাবতীর নিজের ছোট্ট আকাশ থেকে বিশ্বময় উড়ে যাওয়ার গল্প কলাবতী কথা । এই প্রথম যেন একটি মেয়ে সামাজিক অনুশাসনকে তুচ্ছ করে নিজেকে সম্পূর্ণ ভাবে বিকশিত হতে দেখল । নারীর যৌনতার অধিকারও সেখানে ডানা মেলল । এই যাপনে এক থেকে আরেক নারীর আশ্রয় শেষ পর্যন্ত প্রতীক হয়ে দাঁড়ায় মুক্তির । পুরুষের ভূমিকা অনেকটা সাইডকিকের মত । কলাবতী একাই এক ক্ষয়ে যাওয়া সমাজের হয়ে প্রতিষ্ঠা কেড়ে আনে প্রথম বিশ্ব থেকে । 

এ উপন্যাস উদযাপনের । নারীর অধিকার , শিল্পের অধিকার , অর্থনৈতিক ভারসাম্যের অধিকার , আর সর্বশেষে আপনমনে বাঁচার অধিকারের । 

'কলাবতী কথা' । লেখিকা ইন্দিরা মুখোপাধ্যায়
প্রকাশক - আনন্দ 



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.