x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৭

রূপক সান্যাল

sobdermichil | অক্টোবর ২৬, ২০১৭ | | মিছিলে স্বাগত
রূপক সান্যাল
 মেঘ ও বৃক্ষ 

ওই মেঘখন্ডটি তোমার, ওকে দেখে রেখো –
বহুকাল আগে ও তোমার কোল চেয়েছিল
ও তোমাকে ভেজাবে, ভাসাবে- হয়তো কাঁদাবেও
তবু দেখে রেখো ওকে, ভালোবেসো
জীবনভর যে স্থিরতার সাধনা করেছ তুমি
              আঁকড়ে ধরেছ স্থবিরতা
ওই মেঘখন্ডটি তার বিপরীতে দাঁড়িয়ে, চিরকাল
তোমাকে শিখিয়েছে ভ্রমণ – ভ্রাম্যমানতার বোধ...
ওকে দেখে রেখো

ওই বৃক্ষটি তোমার, ওকে আলো দিও,
আর দিও জল-টল এইসব
বহুকাল আগে ও তোমার মন চেয়েছিল
ও তোমাকে ছুয়ে দেবে, ঢেকে দেবে
ঝড়ের মত মাথা নেড়ে উড়িয়ে দেবে চুল
তবু ওকে আলো দিও, জল দিও
          আর একটা প্রাথমিক ঘেরাটোপ
যে নেশায় তুমি বারবার ভেঙে ফেল ঘর
সম্পর্কগুলো কাঁচি দিয়ে কুচিকুচি করে কাটো
ওই বৃক্ষটি তার বিপরীতে দাঁড়িয়ে, তোমাকে
চিরকাল শিখিয়েছে স্থির থাকা, করেছে সহনশীল...
ওকে দেখে রেখো, আলো জল দিও

বৃক্ষটি আজ ডেকেছে মেঘখন্ডটিকে
হয়তো আছে কোন গভীর আলোচোনা,
হয়তো দু’জন দু’জনকে –

তুমি ওদের মধ্যস্থ হবে ?


 ডাইনিং টেবিল 

চাঁদের মুখের সামনে দাঁড় করিওনা অন্য কোন চাঁদ
মুখ ঢেকে দিও না অন্য কোন মুখের আড়ালে
এখানে অসংখ্য ফাঁদ ... আমি দুই হাত,
তুমি নাহয় একহাতই বাড়লে

এরকম সূর্যাস্ত চাইনি কোনদিন,কোথাও এতটুকু
মেঘ নেই,কাকে দেব শেষ রঙটুকু?
চাঁদের মুখের ওপর কেউ পোস্টার সেঁটে দিলো
চাঁদ কেটে বানালো ডাইনিং টেবিলও ...

মানুষটা মানুষেরই মত,তবু গায়ে তার বিজাতীয় নীল
ফুল নয়,ফুলের মত— সুগন্ধ অমিল
চলো খেয়ে নিই,ওই তো ডাইনিং টেবিল



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.