শুভাশিস সামন্ত

শুভাশিস সামন্ত
 ভিতর গুলো সবই ভাঙাচোরা 

দুজনের দেখার মাঝে সামান্যই ছিল সময়
আর বাকিটা মেঘ বৃষ্টি ঝড়
তারপর বালির ঘর আর কাগজের নৌকো
একজন গেলো ভেঙে আর একটা দুলতে দুলতে কাত
কি হবে এবার -

মেঘদের দেশ আমি চিনি ,আসলে আমি চেয়েছিলাম সাদা মেঘ
বৃষ্টি ঝরবে ঝরবে করেও ঝরবে না
ঝরবে শুধুই প্রেম
এত সামান্য হয়ে গেলে কি থাকে আর-

বাঁশপাতা হেঁটে গেলে ঠোঁটের মাঝে সুলুক হাসি ছড়ায়
যেই তাকালে মেহগনি বুকের মাঝে ওমনি আকাশ ছুঁয়ে রাশি রাশি কুঁড়ি
রঙ ছড়ালো আকাশে আকাশে
কোকিলের সুরে দিগন্তে জুড়ে মাতল সবাই
বেজে উঠল ফাগুয়ার গান
হঠাৎ তুমি চলে যেতেই নোনাজলের মুখোমুখি

হাত ধরলাম বৃষ্টির
আমাদের প্রেমের মাঝে ভারী হয়ে এলো দমকা বাতাস
ওমনি কেঁপে উঠল মাথা থেকে জমিন
নেমে আসলো ঘন ঘন বাজ
নষ্ট হল মুহূর্তরা,হারিয়ে গেল ভালবাসার দিন

খলখলে হাসি দিয়ে আমারই আবাদে বাঁধলে বাসা
গলায় পুঁতির মালার টুংটাং আওয়াজে
আমাকেই করে ভূমিহীন
দাঁড়িয়ে আছি আমি ,বাইরেতে শ্যামলা সবুজ
সামনে আমার সুখছাপানো ঘর

একটা মিষ্টি আঁধারে হৃদয় ডুবিয়ে বসে থাকি
বৃষ্টির শব্দের মতো সুখ আর কিছুতেই নেই
আমার চোখ খোলা ,হৃদয় দৌড়াচ্ছে শিশুর মতো
রাত ছুটে চলেছে জোছনাজলের অনুভূতিতে
ভিতর গুলো সবই ভাঙা-ফাঁকা



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

নবীনতর পূর্বতন