Header Ads

Breaking News
recent

নিবেদিতা ঘোষ মার্জিত

নিবেদিতা ঘোষ মার্জিত
 কাদাজলের কবিতা 

১।

রুমালে কিছু ঝড় ধরে রাখি।
টিফিন বাক্সে কয়েক টুকরো মেঘ।
ধার করে কিছু বজ্রপাত পকেটে রেখেছি।
মনের মধ্যে যতো কাঁকর আছে!
বাণ এলে সব ধুয়ে যাবে।
অথচ , রেনকোট পড়ে আছি
ভয় পাছছি।
খুব ভয় পাচ্ছি...ভিজে যেতে।

২।

ছাতার নীচে লুকিয়ে রাখতে হচ্ছে বেশ কিছু অক্ষর।
ভিজে যেতে পারে।
ভিজে গেলে কাউকে দেখানো যাবে না।
অক্ষরেরা কথা শোনে না।
আমার গলা ধরে ঝুলোঝুলি করে।
ঠোঁট ফুলিয়ে বলে “অনেক কান্নার দাগ আছে ধুয়ে নিই।”
আমি ওদের ঠেসে ঠেসে পুরে দিই প্ল্যাস্টিকের মধ্যে।
শুকনো খটখটে কান্নার দাগ লাগা অক্ষর খুব দামী।
ঠিক মতো বিক্রি করতে পারলে...

৩।

ফোঁটায় ফোঁটায় ব্যাথা ঝড়ছে,
ইলেকট্রিকের তারে, গাছের পাতায়, কার্নিশে, শার্সিতে।
তুমি ছাতা মাথায় দিয়ে পাড়ার দোকান থেকে ওষুধ আনলে।
জ্বরের ওষুধ।
থার্মোমিটারে জ্বর মাপা যায়।
তুমি দুচোখ ভরা আশ্রয় দিচ্ছ।
কিন্তু ব্যাথা মাপতে পারছ না।
খুঁজছ , ব্যাথা কোথা থেকে এলো।
সুখের নাকি একার?
ভ্রু কুঁচকিয়ে তুমি পথ্য তৈরি করছ ।
পাড়ায় নর্দমায় নর্দমায় ব্যাথা বাড়ে।
নদীতে নদীতে ব্যাথা বিপদ সীমা ছাড়ায়।
আমি তোমাকে এবার ভাসিয়ে নিয়ে যাবো।


কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.