Header Ads

Breaking News
recent

রবীন বসু

রবীন বসু
 এ ভারতবর্ষ তোমার নয় ঠাকুর 

ভারতবর্ষ কি তোমার, ঠাকুর? এই অক্ষরজ্ঞানহীন
 হতদরিদ্র চাষী, ফুটপাতে  শুয়ে থাকা বুভুক্ষু মানুষ,
স্কুলছুট এই শিশু শ্রমিকের দল, এরা কি তোমার
সহজপাঠের পাঠ বোঝে? ওদের ‘মন কি বাত’ কে
শুনতে পায় কবি?  যে বালিকা ফুল হয়ে ফোটার কথা,
সে শুয়ে আছে নোংরা খালের জলে, তার কুমারী-জীবন
ছারখার  খুন ধর্ষণ গণহত্যা—সরকারি সন্ত্রাস সবই
আছে, আছে নোট বন্দীর খেলা, হে ঠাকুর, তুমি কি
বধির হবে? হবে অন্ধ ধৃতরাষ্ট্র? পঞ্চ পাণ্ডব আজ খেলা
শেষে ফিরে যাচ্ছে ঘরে, ওদের জয়োল্লাস তোমার
কানকে কি ব্যথা দিচ্ছে? কোথায় ধর্ম হে কৃষ্ণ কবি?
কোথায় সুবাতাস? চারদিকে সিণ্ডিকেট, চারদিকে
দমচাপা ভয় ;  ঘর ও ঘরের মধ্যে ওরা ঢুকে পড়ছে
বেআব্রু হাত   মানুষের নিজস্ব মত নেই, স্বাধীকার নেই,
সে শুধু হ্যাঁ’তে  হ্যাঁ. না’তে না বলুক—তাহলেই ভালো,
অন্যথায় ধুন্ধুমার, ভিটেমাটি ছাড়া, রাতে বাড়ি ফেরার
পথে গায়ে পড়বে গরম অ্যাসিড, যেন অগ্নিস্নান ! হে বৃদ্ধ
কবি, এই কি তোমার ভারতবর্ষের ছবি?
আলোহীন, বিদ্যালয়হীন, স্বাস্থ্যহীন এক অচ্ছে দিন
আমাদের সামনে, আমরা দেখছি এক স্বচ্ছ ভারতবর্ষ
হে মহান কবি, তোমার নোবেল পদক তাও লোপাট—
কি শান্ত নিরবিলি প্রতিবাদহীন মেনে-নেওয়ার এক দিন,
পাখি ডাক ভুলে গেছে,
বৃক্ষ নেই, সবুজ নেই—সম্প্রীতি-বিহীন এ ভারতবর্ষ
আর যার হোক, তোমার নয় রবি ঠাকুর !



কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.