x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

মঙ্গলবার, মে ০৯, ২০১৭

সায়ন্ন্যা দাশদত্ত

sobdermichil | মে ০৯, ২০১৭ | | মিছিলে স্বাগত
অটিস্টিক শিশু এবং সুস্থ মানুষগুলির জন্যে
ফিরতি নৌকোটির পাশ ঘেঁষে নেমে যাচ্ছে সূর্য । এখনো জল অনেক গভীর !
- জল তুমি চেনো ? তোমার তো মন খানিক অক্ষম !
- উঁচুতারে হেসে ফেলতে পারলেই আনন্দ মানো তোমরা ? গতকাল ব্যাপক বৃষ্টির মধ্যিখানে যখন ফিরে আসছ। চড়লে গাড়ি। ওয়াইপারে জল ভাঙছে। তুমিও ভাঙছ । চাকরি অথবা মায়ের মুখ  !ভাবলে মা নিশ্চই ভারী ? তবুও তো হাসলে । তবুও ফোনে বলে যাচ্ছ সুসংবাদ। কান্না যাদের বারণ তাদের আসলে হাসি বলে কোন জানলা খোলা নেই !

- জানলা ধরে তাকিয়ে আছো তুমি। ঘন্টার পর ঘন্টা ! একইরকম ! ক্লান্ত হওনা ? কি এতো দেখো শূন্যতম চোখে ?
- যাকিছু শূন্য দেখছ তুমি....জানো কি শূন্য থেকেই শুরু ?! সামনে এগোলে এক দুই তিন...সংখ্যা !কিন্তু শূন্যতম অশেষ। সেসব কে আর জানবে ?
- কথা শোননা। বলোও না ভালো । একটি ক্রমাগত অক্ষরে আটকে থেকে যাও। বোবার কোন শত্রু হয়নি যেমন ; বন্ধুও হয়না কোনদিন।
- প্রিয়তম শব্দ বোঝো সুস্থ মানুষ ? যেকোন কান্নায় বলতে হয়ত পারোনি...তবুও বারবার নীরবে ডেকেছ যাকে  !সেও কি তোমায় অসমাপ্ত...জরাগ্রস্ত ভাবে ?

          ন হন্যতে হন্যমানে শরীরে....এই আত্মা অক্ষয়। এর কোন বিকার নেই । ক্ষয় ,বয় ,লয় কিছুই নেই । সৃষ্টির পূর্বেও মাতার জঠরে যেভাবে মগ্ন ছিলে....সৃষ্টিত্তোর যুগেও কথা ছিল সেইরূপ সমদৃষ্টিমান হবে !কথা ছিল পূর্ণ দেখবে কেবল। কথা ছিল স্বাদ ,শ্রবণ ,স্পর্শের ঊর্ধ্বে সংযোগ ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবেনা কোনদিন। সৃষ্টি তোমার। তুমি সৃষ্টির অংশ। তোমার সম্পূর্ণ সত্ত্বা এবং শরীর জাগতিক বোধের বাইরে পরমাত্মার চেতনে সামিল সদা ।

              হে পূর্ণ কর্মক্ষম সুস্থ মানুষ....তুমি কি এইরূপ কর্মে লিপ্ত হতে পেরেছো এযাবৎ ?


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.