Header Ads

Breaking News
recent

বহু স্বরের সম্মিলনে 'বহুস্বর'-এর সার্থক বার্ষিক অনুষ্ঠান

বহু স্বরের সম্মিলনে 'বহুস্বর'-এর সার্থক বার্ষিক অনুষ্ঠান
উত্তর ২৪ পরগনা জেলার সদর-শহর বারাসাতের সুভাষ ইনস্টিটিউটে গত ২রা এপ্রিল বার্ষিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল 'বহুস্বর' পত্রিকাগোষ্ঠী। গত কয়েক বছরের প্রকাশকালের মধ্যেই বারাসাত থেকে প্রকাশিত এই পত্রিকাটি ভাবনাচিন্তায় বিশেষ স্থান করে নিতে সক্ষম হয়েছে। ফলে, তাদের বার্ষিক অনুষ্ঠানও যে ব্যতিক্রমী হবে এই আশা ছিল উপস্থিত দর্শক-শ্রোতার মনে।

সেই আশার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই গানে-গল্পে-কবিতায়-আলোচনায় একটি মনোজ্ঞ সন্ধ্যা উপহার দিল 'বহুস্বর'। মঞ্জুলিকা ঘোষের গলায় রবীন্দ্রনাথের বসন্তের গান দিয়ে শুরু হলো অনুষ্ঠান। প্রকাশিত হলো পত্রিকার বইমেলা ২০১৭ সংখ্যা। এই পত্রিকা যে 'অনন্তকুমার সরকার স্মৃতি গল্প প্রতিযোগিতা'র আয়োজন করেছিল,তার প্রথম তিন স্থানাধিকারী ইন্দ্রনীল বক্সী, সৌম্য ব্যানার্জি ও শ্যামলী আচার্যের হাতে তুলে দেওয়া হলো স্মারক ও আর্থিক উপহার। 'আনন্দ' পুরস্কারপ্রাপ্ত বিশিষ্ট কাহিনিকার স্বপ্নময় চক্রবর্তী 'অনন্তকুমার সরকার স্মারক বক্তৃতা'য় শোনালেন তাঁর লেখক হয়ে ওঠার আবেগমথিত কাহিনি।

এছাড়াও ছিল এই সময়ের কয়েকজন উল্লেখযোগ্য কবির কবিতা-পাঠ এবং 'বহুস্বর'-এর পুরোধা কবি চন্দন ঘোষ-সহ কয়েকজন গল্পকারের অনুগল্প-পাঠ। অনুষ্ঠানের অন্যান্য অংশের মতো এই দুটি খণ্ডেরও সুচারু সঞ্চালনা করলেন কবি শান্তনু চট্টোপাধ্যায়। স্বপ্নময় চক্রবর্তী ছাড়াও অন্যান্য বিশিষ্ট অতিথিদের মধ্যে ছিলেন কবি নীলাঞ্জন মুখোপাধ্যায়, গল্পকার দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য, প্রকাশক তাপস মুখার্জি প্রমুখ।



প্রতিবেদন -
 রাহুল ঘোষ 
কলকাতা

কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.