Header Ads

Breaking News
recent

জয়িতা দে সরকার

ruposhi
রূপসী হেঁসেলের তরফ থেকে এবার আমরা পৌঁছে গিয়েছিলাম কলকাতার কবি জারা সোমা’র হেঁসেলে। রেসিপি জানার সময় কিছুক্ষণ নানান কথায় জানতে পেরেছিলাম কবির আরও অন্যান্য সখের কথাও। শুধু কবিতা লেখাই নয়,সাথে সাথে ওনার অপরূপা নামের একটি বুটিকও রয়েছে। স্ট্রিট ডগদের নিয়ে ওনার একটি সংস্থা রয়েছে (ডি.বি.পেট) এই সেবামূলক সংস্থাটি রাস্তার অসহায় কুকুরদের নিয়ে কাজ করে। তাদের দেখাশোনার ভার বহন করে সোমা’র এই সংস্থা। এক্ষেত্রে আরও একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এলাকার কেউ যদি এই ধরণের কুকুরদের নিজের ঘরে এনে রাখতে চান, তাহলে তাদের দিকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এই সংস্থা। কুকুরটির চিকিৎসার অর্ধেক ভার বহন করে এই সংস্থাটি। নানাধরনের শৈল্পিক কার্যকলাপ এর পাশাপাশি সেবামূলক সংস্থা চালানো অবশ্যই প্রশংসার দাবী রাখে। এর সাথেই সোমা’র হেঁসেল থেকে আমরা পেয়ে গেলাম তিনটি ভিন্ন স্বাদের রেসিপিও। চলুন এবার চোখ রাখি রেসিপিগুলোতে।


মেথি আলু (দমপক্ত)

ছবি - গুগল
উপকরণ: আলু মাঝারি সাইজ (খোসা ছাড়িয়ে লবণ জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে আধ ঘন্টা ), দই ,মাখন ও মটরশুঁটি,রসুন বাটা,আদা অল্প, হলুদ-লঙ্কা-ধনে গুঁড়ো, সবজি মশলা ,টমাটো বাটা ও কসুরি মেথি এবং ফোড়নের জন্য মেথি ও গোটা লঙ্কা,সাদা তেল ,পুরো রান্নাটাই জল ছাড়া হবে দমে ।

প্রণালি: প্রথমে কড়াইতে সাদা তেল গরম করে আলুগুলো লাল করে ভেজে তুলে নিয়ে ওর মধ্যে গোটা লঙ্কা ও মেথি ফোরন দিতে হবে, এবার ওর মধ্যে রসুন বাটা, সব গুঁড়ো মশলা, টমাটো বাটা ও লবণ দিয়ে কষতেহবে, এবার আলু দিয়ে ফেটানো টক দই দিয়ে কষে একটা ভারি ঢাকনা দিয়ে দম এ বসাতে হবে ,এবার ওতে মটরশুঁটি দিতে হবে ,বেশ খানিকটা পর ঢাকা খুলে দেখতে হবে আলু সেদ্ধ হল কিনা ,এবার নামানোর আগে ওতে কসুরি মেথি ও অল্প মাখন দিয়ে গ্যাস বন্ধ করে রাখতে হবে দশ মিনিট গরম গরম মেথি আলু পরিবেশন করো পরোটা দিয়ে।


ভেজা ফ্রাই

ছবি - গুগল 
উপকরণ : পাঁঠার মাথা দোকান থেকে কাটিয়ে গরম জলে পরিস্কার করতে হবে যতক্ষণ না সাদা জল বেরোয় তারপর সেদ্ধ করে নিতে হবে, পিঁয়াজ কুঁচি ,অল্প পরিমানে আদা -রসুন বাটা ,লঙ্কা ধনে ও জিরে গুঁড়ো ,সাদা তেল ,লবণ স্বাদমতো ,আটা গোলা অল্প পরিমানে, সাজানোর জন্য ধনেপাতা ,কাঁচালঙ্কা কুঁচি ,পাতিলেবুর রস ও বিটলবণ। 

প্রণালি: তলা ভারি (ডেকচি)তে অল্প সাদা তেল দিয়ে গরম হলে পিঁয়াজ কুঁচি দিয়ে লাল করে ভাজতে হবে ,এবার একে একে সব বাটা মশলা ও লবণ দিয়ে কষতে হবে এবার মাংস দিয়ে (ঘিলু এর সাথে দেওয়া যায় অথবা আলাদা করেও বানানো যায় ,তবে একসাথে করলে টেষ্ট বেশি) যতক্ষণ না তেল ছাড়ে ,

কষা হলে ওতে পরিমান মতো জল দিয়ে ঢাকা দিতে হবে, ঝোল খানিকটা ঘন হলে ঠান্ডা জলে আটা গুলে ওতে দিতে হবে, ঝোল কমলে গ্যাস বন্ধ করে দশ মিনিট রাখতে হবে,

এবার খাবার আগে ওতে লেবুর রস,ধনেপাতা ,লঙ্কাকুঁচি ও বিটলবণ দিয়ে পরিবেশন করো রুমালি রুটির সাথে।


চিকেন ফ্রাই

উপকরণ- চিকেন (স্কিন সহ), রেড চিলি পাউডার,নুন,ভিনিগার,মিক্সড হার্ব,সাদা তেল ভাজার জন্য,ময়দা। 

প্রণালী- চিকেন পরিষ্কার করে নিন। এরপর ভিনিগার,রেড চিলি পাউডার,নুন দিয়ে মাংসের পিস গুলো ম্যারিনেট করুন একঘণ্টার জন্য (লেগ পিস হলে ভালো হয়)। একটি পাত্রে ময়দা,নুন,রেড চিলি পাউডার,মিক্সড হার্ব মিসিয়ে কোটিং তৈরি করুন। ম্যারিনেট করা মাংসের পিসগুলোকে ওই ময়দার কোটিং এ কোট করে ডুবো তেলে ডিপ ফ্রাই করুন। সবশেষে উপরে হার্বস ছড়িয়ে পরিবেশন করুন স্যালাড এবং সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। 

সোমা’র এই রেসিপি বাজারের যেকোনো নামী কোম্পানীর চিকেন ফ্রাইকে টেক্কা দিতে সক্ষম। বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন,এবং আপনিও হয়ে উঠুন আপনার হেঁসেলের সেরা সেফ। শব্দের মিছিলের সকল পাঠককে রূপসী হেঁসেলের তরফ থেকে আমি জয়িতা দে সরকার জানাই বসন্তের শুভেচ্ছা ও  আন্তরিক ধন্যবাদ। সকলে ভালো থাকুন এই কামনায় ...


কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.