x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৭

জয়িতা দে সরকার

sobdermichil | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৭ | | মিছিলে স্বাগত
জয়িতা দে সরকার
রূপসী হেঁসেলের তরফ থেকে আমি জয়িতা দে সরকার আবার হাজির শব্দের মিছিলের পাঠকদের কাছে। এবার আমার সাথে রয়েছে রূপসী হেঁসেলের অন্যতম প্রিয় রূপসী সোমদত্তা কুন্ডু চ্যাটার্জ্জী। আমাদের এবারের বিষয়-ডায়েট ফুড। আজকাল সুন্দর মানেই তো ছিপছিপে গড়ন। শুধু মেয়েয়াই নয় ছেলেরাও আজকাল নিজেদের চেহারা নিয়ে যথেষ্ট সচেতন। আর তাই সকলের জন্য আমরা এনেছি বেশ কিছু ডায়েট ফুড রেসিপি ।

রেসিপি শেয়ার অবশ্যই করবো তার আগে দু-চার কথা আজের অতিথি সোমদত্তা সম্পর্কে। পড়াশুনা,ঘর-সংসার সমস্ত কিছু একা হাতে গুছিয়ে করেও নিজের সখ বজায় রাখতে রান্না শেখা এবং শেখানো,ফটোগ্রাফী,গান শোনা,গুনগুন করে দু-এক কলি গেয়ে ফেলা সবটাই খুব সহজে করতে পারে সোমদত্তা। বিদেশের মাটিতে রয়ে গেলেও সম্পূর্ন বাঙালীয়ানায় ভরপুর একটি উচ্ছ্বল,উজ্জ্বল এবং সবার প্রিয় নাম নাম সোমদত্তা কুন্ডু চ্যাটার্জ্জী ।  চলুন এবার চোখ রাখি রেসিপি তে। 

১। 
মিন্ট ফ্রুট পাঞ্চ -
উপকরণ: 

আধ কাপ যে কোনো আঙুর, ১/৪ কাপ আনারসের কুচি, ৬-৮ টি টাটকা পুদিনাপাতা, এক চা-চামচ পাতিলেবুর রস, এক চা-চামচ চিনি, আধ কাপ ক্লাব সোডা।

প্রণালী: পুদিনাপাতা থেঁতো করে রস বার করে নিয়ে পাতাগুলো ফেলে দিন। আনারস এবং আঙুর ব্লেন্ডারে মিক্স করে নিন। তারপর তাতে পুদিনার রস, চিনি, লেবুর রস, সোডা মেশান। কয়েকটা পুদিনা পাতা দিয়ে গার্নিশ করে বরফ কুচি দিন৷ তারপর ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন এই মকটেল৷



২।
ডায়েট ভেজিস্ ককটেল-

উপকরণ : নিজের পছন্দমত যে কোন সবজি (যেমন- ব্রকলি, গাজর ছোট, মাশরুম, বিনস্, টমেটো, শশা, বিট), অলিভ অয়েল ১টেবিল চামচ/ ১ চামচ বাটার, নুন ও গোলমরিচ
প্রণালী

* সব সবজি একটি বাটিতে দিয়ে টমেটো ও শশা ছাড়া ১০ মিনিট মাইক্রোওয়েভ করে নিতে হবে অথবা গ্যাসে গরম জলে কিছুক্ষণ হালকা ফুঠিয়ে জল ঝরিয়ে নিতে হবে।

* প্যানে তেল / বাটার দিয়ে সব সবজি দিয়ে মাঝারি হাই হিটে ৬-৭ মিনিট ভেজে নুন ও গোলমরিচ দিয়ে নামিয়ে দিন, দুপুরে পেট ভর্তি করে খান।

* যারা ডায়েট করছেন তাঁরা এই খাবারটি খেতে পারবেন পেটপুরে, ওজন বাড়ার কোন চিন্তা না করেই।


৩।
চিকেন-কাবলি স্যালাড-

অনেকের দুপুরবেলা বেশি খাওয়া হয়ে যায়। যার ফলে ওজন কমার বদলে বাড়তে থাকে। তাদের জন্য রইল দুপুর বেলার এক সুস্বাদু সালাদ। এই স্যালাড ভোজনরসিকদের মনকে শান্ত রাখবে এবং পাশাপাশি ওজনও কমাবে।

উপকরণ:-

এই স্যালাড তৈরি করতে লাগবে মুরগির সেদ্ধ বোনলেস চিকেন ১কাপ, ফ্যাট ছাড়া দই ২ টেবিল চামচ (টক মিষ্টি দই ব্যবহার করতে পারেন), ১ টি শসা, ১ কাপ ছোলা বুট/ কাবলি সেদ্ধ, লেটুস, ১০/১৫ টি আঙুর,নুন এবং ১ চা চামচ অলিভ অয়েল।

পদ্ধতি:-

ছোলাবুট/ কাবলি সারারাত ভিজিয়ে রেখে সেদ্ধ করে নিন। মুরগির সেদ্ধ মাংস ছোট ছোট টুকরা করে নিন। শসা কেটে নিন কিউব করে। এরপর সব উপকরণ একসাথে দই এবং অলিভ অয়েল দিয়ে মিশিয়ে নিন। দুপুরে ভারী খাবার বাদ দিয়ে এই স্যালাডটি খান, সাথে চাই একটু এক্সারসাইজ, ওজন কমবেই।


৪।
পাস্তা স্যালাড-

রাত ৮ তার মধ্যে রাতের বেলার খাবার খেয়ে নেয়ার অভ্যাস করা ভালো। যারা এই অভ্যাসটি তৈরি করতে পারেন না তারা ভারী খাবারের বদলে এই সালাদটি খাবার অভ্যাস করতে পারেন।

পদ্ধতিঃ

এই স্যালাড তৈরি করতে লাগবে ১ কাপ ম্যাকারনি, ১ কাপ ব্রকলি ছোট করে কাটা, ১কাপ সেদ্ধ মুরগির মাংস ছোট করে কাটা, ২ টি টমেটো কিউব করে কাটা, ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল, নুন এবং সামান্য ভিনেগার। সব উপকরণ একসাথে মিশিয়ে নিয়ে ৫-৬ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। এরপর এতে সামান্য লেবুর রস দিয়ে স্যালাডটি খান। ওজন কমানোর জন্য আপনার রাতের খাবার তৈরি।





Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.