x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৭

রাবেয়া রাহীম

sobdermichil | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৭ | | মিছিলে স্বাগত
রাবেয়া রাহীম
 শেখালে তুমি 

শেখালে তুমি কেমন করে পেতে হয় কষ্টের নীল উৎসব
শঙ্খচিল উড়ে যাওয়া দেখে নীরবে কেঁদে
রাজ হংসের মত স্রোতে ভাসতে হয়,
আরও শেখালে অবাধ্য ইচ্ছে গুলো সঙ্গী করে
নিয়মের উঠোন ডিঙিয়ে
কি করে এক মুঠো জোছনা পেতে হয়
শিখিয়েছো, অবিনশ্বর আত্মা জ্বালিয়ে
কি করে পবিত্র করতে হয়
তাই বুঝি অন্ধের মতো তোমার অনুগত হয়েছি।


 কোথাও নেই যেন কেউ 

পৃথিবীর প্রতি সব আকর্ষণ যখন অকার্যকর
 ঈশ্বরীয় শূন্যতা সঙ্গী করে উড়তে থাকি ফানুসের মত
ওজোনস্তর ডিঙিয়ে চলে যাই নিমিষে অচেনা আরেক পৃথিবীতে
আদরে- প্রেমে,আকর্ষণে।।
সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত, মাস থেকে বছর, বছর থেকে যুগ
ভ্রান্তির ঘেরা কারাগারে ভাষাহীন, আদিম এক বোবা গর্জন
ঝরা পাতাদের মাড়িয়ে নিশাচর বিড়ালের ছন্দ
নিস্তব্ধ মাঝ রাতে দেয়াল ঘড়ির টিক্ টিক্
গুমোট বাতাসে ছুটে চলা ট্রেনের শব্দ
আহ! সময় কেটে যায়- কি নিদারুণ নিশ্চুপ !
স্থির দাঁড়িয়ে চলমান পরিবর্তনের সাক্ষী
চমকে ওঠা স্পর্শিত শিহরনে উথাল পাথাল ঢেউ
ডুবিয়ে মনের বালিয়াড়ি থৈ থৈ গোপন নদীর জল
কোথাও নেই যেন কেউ !!


 আহত দর্শক 

 জিরোগ্রাউন্ডে দাঁড়িয়ে শুনেছি স্বজনের শোকাতুর কান্ন
দেখেছি যুদ্ধ বিদ্ধস্ত সকল জনপদের বয়ে যাওয়া রক্ত স্রোত
পলকহীন চোখে তাকিয়ে রয়েছি নিভৃত মাতমে জর্জরিত
শোকাতুর প্রিয়তমার ধুসর ক্লান্ত দুটি চোখে
চাপা কান্নায় স্তব্দ ক্ষত বিক্ষত রক্তাক্ত শরীর দেখেছি
পাথরে খোদাই করা নামের উপর।।
শান্ত নিরিবিলি সুনসান নিরবতায়
সুরক্ষিত নিরাপত্তা বেষ্টনীর ভেতর
টকটকে লাল গোলাপ ছিল দুঃস্বপ্নের রক্তঝরা অাতঙ্ক
আর আমি ছিলাম শুধুই আহত দর্শক ।।


 অশরীরী 

নিদ্রাহীন নিশুতি রাতের প্রেমকাব্য রূপে
সমর্পিত হয়েছি অন্ধ বিশ্বাসে তোমার--
স্নিগ্ধ ভোরের আদরমাখা পরশে
সকল ভ্রান্তি বিলীন হয়েছে
নিখাদ ভালোবাসায়
নিঃস্ব হবার ইচ্ছেতে অপার্থিব আবেশে
এক হয়েছি তোমাতে !
গভীর রাতে স্বপ্নহীন এই আমাকে
ভালোবাসার বাহুডোরে আঁকড়ে--
তোমার শর্তহীন এতটা ভালোবাসা দাও
শূন্যতার পূর্ণতা যেন পাই-!
পৌরাণিক চুম্বনের -অভিন্ন আত্মা হয়ে আদি-অন্তহীন --
ভালবাসার মহাসমুদ্র মন্থনে মাতম তুলো হৃদয়ে আমার
শরীরি বা অশরীরী !!





Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.