Header Ads

Breaking News
recent

সুবীর সরকার

 ‘ও জীবন রে’








একথা আমি বিশ্বাস করি না যে দীপঙ্কর দা নেই!

কবি দীপঙ্কর দত্ত একজন মরমীয়া মানুষ। আবেগপ্রবণ,অভিমানী মানুষ। সাহিত্যের নানান শাখায় ও বিভিন্ন বিষয়ে তার অগাধ পড়াশোনা, যা আমাকে বিষ্মিত করেছে সবসময়। টেলিফোনে, মেসেঞ্জারে বহু কথা হত দীপঙ্কর দার সঙ্গে। কবিতা, কবিতার তত্ব, লোকসাহিত্য, চিত্রকলা, চলচিত্র, প্রান্ত-কেন্দ্র ইত্যাদি নিয়ে।

‘শূন্যকাল’ ওয়েবম্যাগ নিয়ে ভিষণ অবসেসন ছিল তার। ভাল লেখা, যারা নুতনভাবে কাজ করছেন তাদের খবর রাখতেন নিয়মিত। আবিষ্কার করেছেন অনেক তরুণ ভাষাকর্মীকে। দীপঙ্কর দা শেষ টেলিফোন করেছিলেন আমার জন্মদিন, ৩ জানুয়ারীতে। মিনিট ১০ কথা হয়েছে। আর মেসেঞ্জারে ৭ তারিখ নানান মজামস্করা করেছিলেন। কথা ছিল বইমেলাতে দেখা হবে এবার। লেখা চাইলেন শূন্যকালের জন্য।উত্তর জনপদের ওপর একটা গদ্য। 

এ কেমন চলে যাওয়া! এ কেমন অভিমান! স্তব্ধ হয়ে যেতে হয় শুধু! আমি কিন্তু জানি, দীপঙ্কর দা আছেন; বিল্কুল আছেন। কুয়াশায় মদ্যপান শুরু করবেন এখুনি। আর মাইল মাইল কুয়াশায় হেঁটে যেতে থাকবেন অন্তহীন।





কোন মন্তব্য নেই:

সুচিন্তিত মতামত দিন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.