x

প্রকাশিত

​মহাকাল আর করোনাকাল পালতোলা নৌকায় চলেছে এনডেমিক থেকে এপিডেমিক হয়ে প্যানডেমিক বন্দরে। ওদিকে একাডেমিক জেটিতে অপেক্ষমান হাজার পড়ুয়ার ভবিষ্যৎ।​ ​দীর্ঘ সাতমাসের এ যাপন চিত্র মা দুর্গার চালচিত্রে স্থান পাবে কিনা জানি না ! তবে ভুক্তভোগী মাত্রই জানে-

​'চ'য়ে - চালা উড়ে গেছে আমফানে / চ'য়ে - কতদিন হাঁড়ি চড়েনি উনুনে / চ'য়ে - লক্ষ্মী হলো চঞ্চলা / চ'য়ে - ধর্ষিতা চাঁদমনির দেহ,রাতারাতি পুড়িয়ে ফেলা।

​হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষটি লালমার্কার দিয়ে গোল গোল দাগ দেয় ক্যালেন্ডারের পাতায়, চোদ্দদিন যেন চোদ্দ বছর। হুটার বাজিয়ে শুনশান রাস্তায় ছুটে যায় পুলিশেরগাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স আর শববাহী অমর্ত্য রথ...। গঙ্গা দিয়ে বয়ে গেছে অনেকটা জল, 'পতিত পাবনী গঙ্গে' হয়েছেন অচ্ছুৎ!

এ কোন সময়ের মধ্যে দিয়ে চলেছি আমরা?

ছবিতে স্পর্শ করুন

শব্দের মিছিল

অতিথি সম্পাদনায়

সমীরণ চক্রবর্তী

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৬, ২০১৭

সোমা ঘোষ

sobdermichil | জানুয়ারী ২৬, ২০১৭ | | মাত্র সময় লাগবে লেখাটি পড়তে।
সোমা ঘোষ

 আমি সেই মেয়ে 

আমি সেই মেয়ে,
জীবনের আলো দেখার আগেই যাদের
শ্বাসরুদ্ধ করেছো তোমরা মাতৃজঠরেই।
মাটির অতল গহ্বরে, অন্ধকার কবরে
শায়িত করেছো যাদের অবহেলায়।

ধিক্কার জানাই আমি তোমাদের পৌরুষ সত্ত্বাকে
পিতৃত্বের মুখে কালিমা লেপন করেছে
তোমাদের মতো কিছু কাপুরুষ মাতৃহন্তা॥

আমি সেই মেয়ে,
প্রতিনিয়ত যাদের শ্লীলতাহানি করে চলেছো
তোমরা পথে ঘাটে, ট্রামে বাসে।
প্রতিবাদে মাথা উঁচু করলেই অ্যাসিডে ঝলসে
দিয়েছো যাদের অস্তিত্বকে,
পৌরুষের ধ্বজা উড়িয়ে।
মাথা নত হয় আমার , লজ্জায় , ধিক্কারে,
তোমাদের মতো পাশবিক অস্তিত্বের
জন্মদাত্রীও যে আমিই॥

আমি সেই মেয়ে ,
অসহায় পিতার পণের দাবী মেটানোর অক্ষমতায়,
যাদের তোমরা করেছো অগ্নিদগ্ধ,
লাঞ্ছনা, গঞ্জনায় জর্জরিত করে বাধ্য করেছো
যাদের আত্মঘাতী হতে।
ঘৃণার চাবুকে করেছি ক্ষত বিক্ষত আপন মাতৃসত্ত্বাকে,
তোমাদের মতো বুভুক্ষু পশুর দেহ যে
আমারই রক্তমাংসে গড়া॥

আমি সেই মেয়ে,
নষ্টা বলে যাদের করেছো তোমরা সমাজচ্যুত,
অথচ রাতের আঁধারে তাদেরই সাথে
মেতেছো ঘৃণ্য সম্ভোগের খেলায়।

আমি তাদেরই একজন,
যাদের যৌবনকে জরীপ করে চলেছে অহরহ
তোমাদের কামাতুর লোলুপ দৃষ্টি ।
যারা ধর্ষিতা প্রতিদিন তোমাদের হাতে,
প্রায়শই যাদের গলিত শব পাওয়া যায়
ক্ষেতে, জঙ্গলে , খালে বিলে॥
আর কতোকাল থাকবে তোমরা পৌরুষের
মাদকতায় মত্ত হয়ে?

চোখ মেলে দেখো, আমি সেই নারীসত্ত্বা
যার জঠরে জন্ম নিয়েছো তোমরা ।

আমি সেই নারীসত্ত্বা, যাকে তোমরাই
অধিষ্ঠিত করেছো দেবীর আসনে,
পূজিত করেছো নারী শক্তি রূপে ।
আর আজ তাকেই অহরহ করে চলেছো বিবস্ত্র
পৌরুষত্বের উন্মাদনায়?

ধিক্!




Comments
0 Comments
 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.