x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২৬, ২০১৭

মন্দিরা ঘোষ

sobdermichil | জানুয়ারী ২৬, ২০১৭ | | মিছিলে স্বাগত
অন্তরমহল









সারাদিন অফুরান ব্যস্ততার মাঝে আমার এক টুকরো অবসর জুড়ে থাকে আমার উদাসী দুপুরের বৃষ্টিগান, ভাঙা বিকেলের বিষাদকথা আর হারানো রাজপ্রাসাদের আনাচেকানাচে আগুনপাখির স্বপ্নউড়ান। শেষ বিকেলের লাল আলোয় আমার বিলাসী বিষণ্ণতার গল্পে নিজেকে হারিয়ে খুঁজি। আমার প্রিয় শব্দেরা হেঁটে বেড়ায়, ভেসে বেড়ায় ঘরে ফেরার পাখির পালক ছুঁয়ে ছুঁয়ে। তাদের সাজিয়ে রাখি আমার এক চিলতে বাগানের ভালবাসার গাছপালার ছায়ায়।

এপাশে আমার ঘরোয়া সাদামাটা জীবনের মহার্ঘ গাছপালা সব। কোনটা অর্কিড, কোনটা ম্যাগনোলিয়া, কোথাও বা এককোণে মুখ লুকিয়ে বেল ফুল।তাদের আলো, জল আর যত্ন দিই। ভালবাসার বাতাস দিই খুব। ভরা দুর্দিনে আমার নীল আঁচলের ছায়া দিয়ে ভুলিয়ে রাখি। আমার অবশিষ্ট সময় টুকু দিয়ে অবসর সাজাবো বলে যখন উঁকি মারি, দেখি সেখানে আমার একলা দুপুর হাওয়ার সাথে গল্পে বিভোর, বৃষ্টিরা সব নিজের মত, সোনালি বিকেল ডানায় সুর ভরে নিয়ে পাড়ি দেয় আমার স্বপ্নের রাজপ্রাসাদে আমাকে ছাড়ায়!

অবাক হই, যা আমার ছিল একান্তভাবে তা আমায় বাদ দিয়ে কবে সাবালক হল! এই মাটির সোঁদা গন্ধ, এই বিকেল নিঙড়ানো আলো, নদীর বুক ছুঁয়ে থাকা শিরশিরে বাতাস, গাছের পাতায় ভোরের শিশিরজল-এরা কেউ আমার আপন নয়। বুঝলাম এই নিরপেক্ষ পৃথিবীর সবকিছুই আপেক্ষিক। আমার সাজানো দুর্লভ সংসারেও আমি জীবন্ত ফুলদানী।

মনে মনে সাবালক হলাম বেশ। আমার নিজস্ব দুঃখবোধ, ভাললাগা, একাকীত্ব -এ সবই একান্ত আমার ভিতরের। শেষ বিকেলের বিষন্নতা অথবা একা একা জোনাকিরাতের রোমাঞ্চসুখ, আমার হারিয়ে যাওয়া শীতল ছায়ার অনন্ত অন্বেষণ আমারই। সাঁজবাতির আলোয় যত্নে সাজানো প্রেমজ শব্দের আত্মনিবেদনেও কোন বিভাজন নেই।এগুলোর ভাগ হয়না হয়তো কোনদিন।

আমার একাকী বেদনাবিলাস, একটি হারিয়ে যাওয়া বৃষ্টিসন্ধ্যার মুহুর্তকাল-এ সবই সাজানো থাক আমার অন্তরমহলে। তার খোঁজ পাবার চেষ্টা ও কোরো না কেউ কোনদিন।



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.