x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

শুক্রবার, জানুয়ারী ২৭, ২০১৭

কোয়েলী ঘোষ

sobdermichil | জানুয়ারী ২৭, ২০১৭ | | | মিছিলে স্বাগত
 শিল্পীর সাথে --

পরিচয় ফেসবুকে। মুগ্ধ হয়েছি বারবার তার প্রতিটি পেন্সিল স্কেচে ,পোট্রেট ছবিতে। দেখা করার কথা ছিল বইমেলায় কিন্তু খুঁজতে খুঁজতে যখন সে পৌঁছল আমি তখন বাড়ির পথে। আজ বললাম -- কি কাজ বাকী ? চলে এসো দিদির টানে। সেও এসে হাজির, আর আমি অবাক! 

ক্ষুদে শিল্পী জানতাম তাই বলে এতো ছোট ! মাত্র ক্লাস ইলেভেন এ পড়ে । নাম যুগল সরকার । বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার জেলা শহর বালুরঘাটের কাছে এক গ্রামে । বাবার জমিজমা আছে । ছেলে আঁকায় মগ্ন । দিনে পাঁচ, ছ ঘণ্টা শুধু আঁকে । নাওয়া খাওয়া মনে থাকে না ।মার কাছে বকুনি খায় । 

শিল্পীর কাছে জানলাম সে পোট্রেট আঁকতে ভালবাসে বেশি । মোবাইলে ছবি তুলে রাখে আর পড়ার ফাঁকে ফাঁকে আঁকে । গঙ্গার ধারে নিয়ে গিয়েছিলাম, সেখানে সে দূরে নৌকো ভাসছে, পরিযায়ী পাখী উড়ছে -- সেই সব ছবি তুলে রাখল তারপর বাড়ি গিয়ে কোন একসময় আঁকবে ।

কবিতা ভালবাসে খুব, নিজেও একটু লেখে । আজ সকাল থেকে দুপুর পেরিয়ে গেল -- অজস্র ছবি দেখলাম । আমার জন্য সে যে উপহার এনেছে খুব দামী আমার কাছে । আজ শিল্পীর সেই অসাধারণ ছবিগুলো সবার জন্য পাঠালাম ।

দিদির হাতের রান্না ভাত খেয়ে সে রওনা দিল বাড়ির উদ্দেশ্যে । আবার আসবে, আরও বড় হবে। আকাদেমি অফ ফাইন আর্টস -এ পড়বে । অনেক শুভেচ্ছা , ভালবাসা আর আশীর্বাদ শিল্পীর জন্য । সে কোনদিন আঁকা শেখেনি । সব প্রতিভাই সহজাত । শিল্পী কবি এভাবেই জন্ম নেয় তুলিতে কলমে রেখে যায় জীবনের জলছবি ।







যুগল সরকারের আঁকা 



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.