x

প্রকাশিত

অর্জন আর বর্জনের দ্বিধা কাটিয়ে উঠতে পারেনি বলেই মানুষ সিদ্ধান্তের নিরিখে দোলাচলে।সেখানে প্রতিবাদও ভঙ্গুর।আর যথার্থ প্রতিবাদের থেকে উঠে আসে টায়ার পোড়ার গন্ধ।আঘাত প্রত্যাঘাতের মাঝখানে জন্মদাগও মুছে যায়।সংশোধনাগার থেকে ঠিকানার দূরত্ব ভাবেনি কেউ।ভাবেনি হাজার চুরাশির মা’র প্রয়াণ কোন কঠিন বাস্তবকে পর্যায়ক্রমিক প্রহসনে রূপান্তরিত করেছে।একটা চরিত্র কত বছর বেঁচে থাকে ?কলম যাকে চরিত্রের স্বীকৃতি দেয় তেমন পোস্টমর্টমের পড়ও আরও কয়েকযুগ বাঁচিয়ে রাখতে পারে কলমই। অভয়ারণ্যেও ঘেরাটোপ! সেই আপ্তবাক্য -

“মানুষ নিকটে গেলে প্রকৃত সারস উড়ে যায়” – স্বভাবতই প্রশ্ন ওঠে – প্রকৃত সারসই তাহলে উৎকৃষ্টতর।

“মানুষ নিকটে গেলে প্রকৃত সারস উড়ে যায়” – স্বভাবতই প্রশ্ন ওঠে – প্রকৃত সারসই তাহলে উৎকৃষ্টতর।

ভাববার সময় এসেছে। প্রতিবাদটা কোথা থেকে আসে—বোধ ?মস্তিষ্ক ?মুঠো? না বাহুবল?

ছবিতে স্পর্শ করুন

শব্দের মিছিল

অতিথি সম্পাদনায়

বিদিশা সরকার

শুক্রবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৬

পিয়ালী বসু / বাসব মণ্ডল

sobdermichil | নভেম্বর ২৫, ২০১৬ | | মাত্র সময় লাগবে লেখাটি পড়তে।
পিয়ালী বসু / বাসব মণ্ডল

ফেদেরিকো গারসিয়া লোরকার (স্পেনীয়: Federico Garcia Lorca) (৫ জুন, ১৮৯৮ - ১৯ আগস্ট, ১৯৩৬) স্পেনের গ্রানাদায়। তিনি প্রজন্ম ২৭-এর সদস্য হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেন। কিশোর বয়সেই নাট্যাভিনয়ে হাতেখাড়ি, পিয়ানো ও গিটারে অসামান্য দক্ষতা অর্জন, কবিতায় প্রতিভার স্ফূরণ ঘটে। তাঁর প্রথম কবিতার বই ১৯২১ সালে প্রকাশিত হয়। ফ্যাসিবাদী ফ্রাঙ্কোর বাহিনী তাঁকে হত্যা করে।


Sonnet of the Sweet Complaint - Federico García Lorca 
Never let me lose the marvel of your statue-like eyes, or the accent the solitary rose of your breath places on my cheek at night. I am afraid of being, on this shore, a branchless trunk, and what I most regret is having no flower, pulp, or clay for the worm of my despair. If you are my hidden treasure, if you are my cross, my dampened pain, if I am a dog, and you alone my master, never let me lose what I have gained, and adorn the branches of your river with leaves of my estranged Autumn. 


একটি মিষ্টি অভিযোগের চতুর্দশপদী কাব্য 
তোমার ওই মূর্তি সম মায়াবী চোখের মাদকতা কে হারিয়ে যেতে দিওনা কোনদিন হারিয়ে যেতে দিওনা একাকীত্বের গোলাপ স্পর্শ মেদুর নিঃশ্বাসের ভাষা প্রতি রাতে ... আমার গালে বিমুগ্ধতায় জড়িয়ে থাকে যে তোমাকে হারিয়ে এই পৃথিবীর বুকে ডালপালা হীন রিক্ত কান্ড হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে চাই না আমি চাই না আমার দুঃখযাপন ফুলহীন রসহীন মাটিহীন মৃতপ্রায় গাছের চারিপাশে দিগভ্রান্ত পথিকের মত ঘুরে বেড়াক




অক্টাভিও পাজ লোজানো (৩১ মার্চ, ১৯১৪ – ১৯ এপ্রিল, ১৯৯৮) ছিলেন একজন মেক্সিকান কবি, লেখক, ও কূটনীতিবিদ। তার অসামান্য কাজের জন্য তিনি ১৯৮১ সালে মিগুয়েল ডি সার্ভেন্তেস পুরস্কার, ১৯৮২ সালে নিওয়েসড্যাট ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ ফর লিটারেচার ও ১৯৯০ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। বিংশ শতাব্দীর লাতিন আমেরিকান সাহিত্যের তিনি অন্যতম পুরোধা।



Touch -
Octavio Paz  
My hands Open the curtains of your being Clothe you in a further nudity Uncover the bodies of your body My hands Invent another body for your body 


স্পর্শ 
আমার ভরন্ত শরীর এই মুহূর্তে তোমার সুষ্ঠু দেহসৌষ্ঠবের মাধুকরীতে মগ্ন - প্রাত্যহিকতার তালিকা মুক্ত জীবন ... জামাকাপড়ের আধিক্যহীন শরীর সন্ধানে রত হও ... - খনন করতে থাকি ... স্পর্শের মেহজালে বিদ্ধ করতে থাকি ... তোমায় আরও ... আরও ঘনিষ্ঠ লিপ্সায় চরম আশ্লেষে লেহন করতে থাকি তোমায় - আর এভাবেই নগ্নতার ভাস্কর্যে উন্মুক্ত হোক ...... এক নবতম 'তুমি'





Comments
0 Comments
 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.