x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

শুক্রবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৬

কাজী জুবেরী মোস্তাক

sobdermichil | নভেম্বর ২৫, ২০১৬ | | মিছিলে স্বাগত
কাজী জুবেরী মোস্তাক

দ্বৈত রূপ 

মানুষের মুখোশে আমি এক অন্য মানুষ
ভালোবাসার নামে করি সতীত্বকে লুট
আমার বাহিরে এক রুপ অন্তরে বিরুপ ৷
মুখোশের মিছিলে মনুষত্ব দিয়েছে ডুব
অাধুনিকতার নামে আজ নগ্নতায় পাই সুখ
এটাই আমার সভ্যতার নামে অসভ্য অসুখ ৷
ওরা মালাউন,ইহুদি,বৌদ্ধ কিম্বা খ্রিস্টান
তুমি তো শ্রেষ্ঠ জাতি,উন্নতশীর মুসলমান
ধর্ষণ,লুটতরাজ,ধ্বংসে কি করছো প্রমাণ ?
আসলে কি জানো ?
তোমার বাহিরে এক রূপ অন্তরে বিরূপ
তুমি তো মানুষ তোমার একটাইতো রূপ
নিজের স্বার্থে ধারণ করো কেনো ভিন্ন রূপ ?
কে আছো মানো না বলো সৃষ্টিকর্তা এক
হিন্দু,মুসলিম,বৌদ্ধ,খ্রিষ্টান মানুষ সবাই এক
আপন স্বার্থে হয়েছো তোমরা ভিন্ন ভিন্ন জাত ৷
তোমার ধর্ম তোমার কাছে আমার ধর্ম আমার
ধর্মকে অপমান করে কি লাভ বলো তোমার
তোমার ধর্মে তুমি চলো আমার ধর্মে আমি
ভিতর বাহির একই রূপে চলো পৃথিবীটা গড়ি ৷




Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.