x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

শনিবার, অক্টোবর ২৯, ২০১৬

পলাশ কুমার পাল

sobdermichil | অক্টোবর ২৯, ২০১৬ | | মিছিলে স্বাগত
পলাশ কুমার পাল

যে হাঁস জল ভাঙে

প্রেমেতে জল ভেঙেছে যে হাঁস
সে কখনো পালক ঝারে না।
হয়তো-

বৃষ্টির মাঝে দাঁড়িয়ে বৃষ্টি হয়ে যায়,
মনেতে ময়ূরের রিদিম্...

মেঘ ভেঙে ভেঙে যায়...
তবু সে পুকুরের পারে নিঃশর্ত,
জলেতে স্ব-প্রতিকৃতি জল ভেঙে যায়...
পালকে ঠোঁট খোঁজে কি শীতঘুম?

যে হাঁস জল ভাঙে
তোমাদের ফটোগ্রাফে মৃত হতে পারে;
আসলে সে সাঁতরায়...
শুষে নেয় সমুদ্রের সব নুন।


ফুচকা ও চিল

ফুচকা গিলছি
গিলছি ঝাল-টক-নুন...
তারপর পাতা ফেলে হিসাব।
তারপর জিভের টিক্ টিক্ টিক্...

টিকটিকি চমকে ওঠে।

চালের কাঁড়িতে মাকড়সা দেখি
জলের নীচে জাল।
রান্নাশাল।
ক্ষুধা হোঁচট খায় বারবার,

খুদ ঈশ্বর হলেও
ফুচকার উপরে জিভ চিল।
ভাগার গিলি
তেঁতুল জলে ঢুবিয়ে রাতদিন...


সিনেমার চিল

ব্যালকনিতে নায়িকা হয়ে যাওয়া
যোনিতে জমে ওঠা ঔরস;
একদিন সে দাঁতই দংশায় স্তন
যে দাঁত মেজেছিল প্রত্যহ-

ছবিগুলো ছিঁড়ে যায় একদিন
ভাঙা ক্যাসেটের রিল।

শিশুরা রিল নিয়ে খেলে...
খবরের কাগজে
আবার ধর্ষিত আর এক মেহেফিল।
নায়িকা নীল হয়ে ওঠে
নীলছবির পারে

শাড়িতে সে ব্যালকনি

সিনেমাতে উড়ে যায় চিল...

বালতি ডোবালেই

বালতি ডোবালেই
শত শত জল উঠে আসে,
নীচে অন্ধকার তবু-

কুয়োর মতো হয়েছে মন।
যেখানে মুখ বাড়িয়ে নিজেকে দেখা
আর
আর কিছু নয়।

কপিকলের দড়ি শুধু জল তোলে।

বুকপকেট আজও অন্ধকার।
আকাশে তবু আলো টলমল...

বালতি ডোবালেই
মরে যাওয়া আবেগের শতদল।



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.