নন্দিনী পাল

নন্দিনী পাল

সিয়াচীন

তুষার ধবল হিমালয় তার আকাশচুম্বী শির
তার পাদদেশে পাতা আছে বারুদের প্রাচীর ।

সূর্য সেথা বরফবন্দী হারিয়ে ফেলেছে চাবি
রাতের বেলা চাঁদ আঁকে অচেনা মায়াবী ছবি ।

ক্ষুব্ধ হাওয়া খেলে যায় এলোমেলো অকারণ
বরফের কাঁচ বিঁধে রক্তাক্ত তন ও মন ।

শব্দহীনরাত ভাঙে,তালঠোকা বুটেরআওয়াজ
শেষ যাত্রায় প্রকৃতি পরেছে বিধবার সাজ ।

অনুপ্রবেশিত বুলেটরা গোপনে পাতে মরণফাঁদ
দম আটকানো তুষারঝড় চেতনা ধূলিসাৎ ।

মৃত্যুর চিঠি পেয়েছি সেদিন এসেছি সিয়াচীন
বালিশের নীচে যত্নে রেখেছি আসন্ন মৃত্যুদিন ।




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

নবীনতর পূর্বতন