x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৬

পলাশ কুমার পাল

sobdermichil | সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৬ | | মিছিলে স্বাগত
পলাশ কুমার পাল




বারেবারে কেন আসিস? কী চাস? তোর শুধু চাওয়ায় আছে, কিছু কী দেওয়ার নেই? কেন বুঝিস না পৃথিবীতে কেউ আপন নয়? ভালোবাসিস? মিথ্যা! মিথ্যা! মিথ্যা! মিথ্যার জাল বুনে যাওয়া কেবল। এটা যে বড়ই স্বার্থপরতা এই প্রয়োজন সর্বস্বতার যুগে। সবাই হেঁটে যায় ফাঁপা মানুষের মতো, রঙচঙে, মুখোশে... ফুটপাতে কোন ভিখারি পরে রইল কেউ তাকায় না। কেউ তাকিয়ে দেখে না পায়ে পা জড়িয়ে কে পিছে পরে রইল!

একা একা হাঁটিস তুই সে ফাঁপা মানুষের মতো। বুঝিস না বিকলাঙ্গ, অসহায়, অনাথ, দরিদ্র মানুষের ব্যথা! তাদের কষ্টের রঙ তো হৃদয়ের কষ্টের রঙের চেয়ে গাঢ়। তবু তুই হৃদয়ের জন্য কাঁদিস। হৃদয়কে কেন শারীরিক ভেবে নিতে পারিস না? ভাবতে পারিস না কেন সে কেবল রক্ত সঞ্চালনই করে? আর কিছু না!

সে যদি আর কিছু বা চায়, সে তো তার দূর্বলতা! সে তো জানে অসম্ভব কোনোদিন সম্ভব হয় না। তবু মিথ্যা সাঁতার কাটা আলয়ায়... আর তার ঢেউয়ের তরঙ্গে পার ক্ষয়, তুই ক্ষয়ে যাস... ক্রমান্বয়ে...

বোঝবার চেষ্টা কর এই ক্ষয়ে যেতে যেতে সাগর হয়ে যাবি কোনোদিন! তখন? নীল জলের গর্জনে, ঢেউয়ের ভাঙা-গড়ায় একলা ভেসে বেড়াবি অসীমে- তোতে ক্ষয়ে যাবে পৃথিবীর চরাচর... তুই কি পৃথিবীর চরাচরকে ভালোবাসিস না? সেখানে পাখি, গাছ, ফুল, ফল- কত আনন্দের উচ্ছ্বলতা! তুই তাদেরকে খুন করিস। তুই খুনি! খুনি! খুনি!

ভালোবেসে দেখ এদেরকে। তাহলে তোকে ঝরতে হবে না। বরং তোর না ঝরায় চোখ গাঢ় হয়ে থাকবে, দৃষ্টিতে আসবে অসীম আকাশ! নিজেকে সস্তা করিস না এতোটা! আর তোর জন্য চোখ রাঙবে না! আমাকেও আর চোখ চাপা দিয়ে ঘুরতে হবে না।


ইতি
তোর ধারক


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.