x

প্রকাশিত | ৯২ তম মিছিল

মূল্যায়ন অর্থাৎ ইংরেজিতে গালভরে আমরা যাকে বলি ইভ্যালুয়েশন।

মানব জীবনের প্রতিটি স্তরেই এই শব্দটি অবিচ্ছেদ্য এবং তার চলমান প্রক্রিয়া। আমরা জানি পাঠক্রম বা সমাজ প্রবাহিত শিক্ষা দীক্ষার মধ্য দিয়েই প্রতিটি মানুষের মধ্যেই গঠিত হতে থাকে বহুবিদ গুন, মেধা, বোধ বুদ্ধি, ব্যবহার, কর্মদক্ষতা ইত্যাদি। এর সামগ্রিক বিশ্লেষণ বা পর্যালোচনা থেকেই এক মানুষ অপর মানুষের প্রতি যে সিদ্ধান্তে বা বিশ্বাসে উপনীত হয়, তাই মূল্যায়ন।

স্বাভাবিক ভাবে, মানব জীবনে মূল্যায়নের এর প্রভাব অনস্বীকার্য। একে উপহাস, অবহেলা, বিদ্রুপ করা অর্থই - বিপরীত মানুষের ন্যায় নীতি কর্তব্য - কর্ম কে উপেক্ষা করা বা অবমূল্যায়ন করা। যা ভয়ঙ্কর। এবং এটাই ঘটেই চলেছে -

চলুন মিছিলে 🔴

সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬

ইন্দ্রাণী সরকার

sobdermichil | আগস্ট ১৫, ২০১৬ | | মিছিলে স্বাগত
indrani

সম্পর্ক 

যে কিছু লোক ভ্রান্ত গবেষণা করে সময় কাটায়
আমি তাদের থোড়াই কেয়ার করি
যাদের নিজেদের জীবনের হিসেবে গরমিল
তারাই ঘন ঘন মুখব্যাদান করে
অন্যের জীবন নিয়ে অর্থহীন পদ্য লেখে
তাও এই একটি দিকে লক্ষ্য রেখে বছরের পর বছর
না আছে কোনো লজ্জা, না আছে কোনো ঘেন্না
তাদের কেয়ার করি না দেখাতেই এখন এলাম
একটু পরেও আসা যেত কিন্তু তাতে সময়-ঘড়িতে
নিজেকে সুরক্ষিত করে,
সুরক্ষা কিসের?
ঘড়ির সময় ঠিক হোক কি না হোক কে দেখে?
নর্দমা খুঁচিয়ে মুক্ত যারা তোলে,
তারা সময় ঠিক থাকলেও অন্য কিছু দেখে।|

তুমি এসেছিলে নিজের ইচ্ছায়
সাথে ছিলে নিজের ইচ্ছায়
চলে গেছ নিজের ইচ্ছায়
দিদির সম্মানহানি কোনদিনও কর নি
তাই এই বলতে এলাম এতদিন পর সুখের মুখ দেখেছ
আগের সময়টা বড় কষ্টের ছিল
যদিও গোপনীয়তা রক্ষায় কোনো ত্রুটি করো নি
তবুও দিদিভাই-য়ের মন সবই বুঝে নিত
ঘরে লক্ষী এসেছে তাকে সুখে রাখো
এ আমি আগেও বহুবার তোমায় বলেছি
ইরেজারে মুছে দেব তোমায়, একটু সময় লাগবে খালি
যেমন বাকিরা সযত্নে ইরেজারে মুছে দেয়
আমার একটু সময় লেগে যায়

এ মুখো আর কোনদিনও হোও না
শেষ বন্ধন বলে কিছু নেই মানুষের জীবনে
মানুষ পুত্র কন্যা শোক থেকেও পুনরুত্থান করে
যে দুই তথাগত তাদের আশির্বাদী হস্তে এত কটা বছর করুণা বিলিয়েছে
যে কিছু সুন্দর মন তাদের আশির্বাদী কলমে রোজ খোঁচা দেয়
যাবার সময় এমনিতেই হয়ে এসেছিল
তোমার যাওয়াটা একটা উপলক্ষ্য মাত্র

ফিরে আসা ?
নিশ্চয়
হেঁট মুখে চলে যাবার লোক আমি নই
আমি মানবতায় বিশ্বাসী
যখন মানবতা আমায় ডাক দেবে আমি ফিরতে বাধ্য
তাই ফিরে ফিরেই আসব
তবে কোনো সম্পর্ক পাতাতে আর নয়
কাদের সঙ্গে সম্পর্ক, যার সম্পর্ককে মুনাফা করে ?
তাকে হাতিয়ার করে নিজেদের উদ্দেশ্য সিদ্ধি করে ?
যারা সম্পর্ক পাতাতে এসে একরাশ ইগো ঢালে
নিজেদের দুর্বলতা আর অক্ষমতা ঢাকার জন্য ?
সে ভুল আর কেউ করে না কি ?
তবুও যারা সুস্থ সম্পর্কে বিশ্বাসী সেই মুষ্টিমেয় কজনের জন্য
থাকবে নিত্য যাওয়া আসা।



Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

�� পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ শব্দের মিছিলের সর্বশেষ আপডেট পেতে, ফেসবুক পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.