পিয়ালী বসু


ম্যাগনিফায়িং গ্লাসে ভাঙনের মৌজা



মৌজার ভাঙনের মুখ
প্রহর ফেলে আলো ছোঁয় না আর
এখন শুধু পাথর ছুঁয়ে নাভিস্থ হয় জল

প্রতিটি  দুপুরের নীরবতা
নিশিডাক , চিকণ কোমর, গার্হস্থ্য বনসাই
নিভৃত সঙ্গোপনে কাহিনী আর বিশালতা বোনে

অযাচিত রবি -দুপুর
মৌনতার অন্তর্দহন মেপে নিষাদ নামে শরীরে
কালো কার্বন ঘিরে
লাল নীল হলুদেরা শুয়ে থাকে

ঋতুচক্রে বারোমাস
হৃদয়-পোড়া গন্ধ নিয়ে
এ আসলে রূপকের আড়ালে  স্পর্শ -অজুহাত

সেলফোনে ভেসে আসে জ্বর-ভেজা
" পরজন্মে ফিনিক্স হবো তোকে সঙ্গে নিয়ে "
চনমনে হৃদয়ের যান্ত্রিকতা , পুরনো অভ্যাস-প্রেম
প্রেত গর্ভে বৃথা সময়- অপচয়ে অভ্যস্ত হয়

পড়ন্ত সময়ের জঠরে জমানো রাগ
বেল-পাতায় রক্ত ঘষা অযাচিত অভিমান
কবিতা'য় আত্মস্নান সারে





Previous Post Next Post