x

প্রকাশিত | ৯৪ তম মিছিল

কান টানলেই যেমন মাথা আসে, তেমন ভাষার প্রসঙ্গ এলেই মানুষের মুখের ভাষার দৈনন্দিন ব্যবহারের কথাও মনে পড়ে যায়, বিশেষত আজকের দিনে। ভাষা দিবস মানেই শুধু মাতৃভাষা নিয়ে আবেগবিহ্বল হয়ে থাকার দিন বুঝি আজ আর নেই!

কেননা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যাঁরা মাথায় বসে আছেন, বিশেষত যাঁরা রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ক্ষমতাভােগী এবং লােভী, তাঁদের মুখের ভাষা এবং তার প্রয়ােগ আজ ঠিক কতটা শিক্ষণীয় এবং গ্রহণীয় সেটা শুধু ভাবার নয়, রীতিমতো শঙ্কার এবং সঙ্কটের।

সবই কি তবে মহৎ ভাবনা, অনুপ্রেরণার জোয়ার? নাকি রাজনৈতিক কারবারিরা 'সুভাষিত' শ্রবণাতীত বয়ানে নিজেদের অক্ষমতার মদমত্ত প্রকাশ করছেন? সাধারণ ছাপােষা মানুষ বিস্ফারিত চিত্তে এই ভাষাসন্ত্রাস,এই ভাষাধর্ষণ দেখতে শুনতে ক্লান্ত। এর থেকে উত্তরণের উপায় এখনও অবধি কোনাে ভাষা দিবস দেখাতে পারেনি। এবারের ভাষা দিবসের কাছেও কি সেই উপায় আছে? নাকি এই খেলা হবে, চলবে ... মেধাহীন গাধাদের দৌলতে?

চলুন মিছিলে 🔴

মঙ্গলবার, জুলাই ৩০, ২০১৩

অমলেন্দু চন্দ

sobdermichil | জুলাই ৩০, ২০১৩ | | মিছিলে স্বাগত







যে কোন ভাষার জীয়নকাঠি থাকে তার  লোকায়ত চর্চার স্বনির্ভরতায়। সমুদ্রের মত তার কোন পাড় থাকে না , শুধু থাকে প্রাকৃতিক নিগড় আর সে নিরিখে থাকা কিছু ভু-খণ্ডের বাঁধন। সমুদ্রটা না থাকলে, যতগুলো ভু-খণ্ড রয়েছে সব প্রাণহীন হয়ে যাবে। ভু-খণ্ড গুলো প্রান্তিকতা আর জাতি সাহিত্যের চেতন। তার নিজস্বতার গতি অনেক কিছু বর্জন করে , যেমন অনেক কিছু গ্রহণ করে আর সেটাই ভাষার উত্তরাধিকার। আর এই উত্তরাধিকারের ধারক বাহক চেতনার প্রকাশ সে ভাষার সাহিত্যচর্চার মধ্যে। সেই চর্চার উৎসব আর যাপন জড়িয়ে চলে সৃষ্টি আর তার ধ্যান। থাকে একটা দর্শন যাতে অন্তর্নিহিত থাকে বেঁচে থাকার আনন্দ, থাকে অব্যক্তের অনুরাগ, থাকে দিব্যোন্মাদ, থাকে তুচ্ছতার প্রতি সকরুণ ভালবাসা, থাকে অস্তিত্বের ঘোষণা। থাকে ভাষা আর ভাবনার দুরূহতা। 

সেই  বিকাশের একটা শুদ্ধ প্রয়াসে পথ চলা সমৃদ্ধ করেছে শব্দের মিছিল ,আজ তার রজত জয়ন্তী সঙ্কলন সেই আন্তরিক প্রয়াসের ইতিকথা। ফেসবুকের পাতায় পথ চলা শুরু , একটা সময়ে ইঙ্গিত নাম্নী একটি পাতায় লেখা লেখি, হয়ত সেখানে তখন  সময় তার ইঙ্গিত রেখেছিল এ ভাবে নয়, তাই শুরু হল মিছিলের নিজস্ব কবিতার পাতা, জড় হলেন বেশ কিছু সমমনস্কতার সুজন। প্রয়াসের সেই প্রেম আর অনুপ্রেরণার সুবাদে শব্দের মিছিল তার  প্রথম মুদ্রিত পত্রিকা প্রকাশ করতে চলেছে আগামী শারদীয়া তথা ইদ্দুজ্জহা উৎসবের প্রাঙ্গনে। 

একাধারে প্রথিতযশা  তরুণ কবি লেখক সাহিত্যিক’দের এই সমস্ত চর্চা আর চর্যার মধ্যে দিয়ে হয়ে উঠতে চাওয়ার প্রয়াসের মধ্যেই নিহিত রয়েছে শব্দের সাধনার ইতিকথা, একটা বিকাশ প্রক্রিয়ার গতিশীলতা। এই পথচলার মধ্যে দিয়েই বাংলা ভাষার পরিচর্যা করে চলেছেন বহু নিবেদিতপ্রান প্রতিশ্রুতিময় সৃজনশীল প্রতিভা। 

কবিতার ক্ষেত্রে ধারা কবিতা  আর উত্তর ধারা কবিতার বিসম্বাদ –  নামিত হোক বা না হোক ছিল, আছেও, থাকবেও, দ্বন্দমুলক বস্তুবিচার এর ক্ষেত্রে এ যেন এক অস্তিত্ব আর অনস্তিত্বের হা ডু ডু খেলার মত হয়ে আছে। যেহেতু স্পর্ধা প্রজাতিগত আর শব্দটার অর্থের একটা আঙ্গিকে প্রতিস্পর্ধার অবস্থান রয়েছে তাই খেলাটায় সেই গোত্রের অনুষঙ্গের রস  থাকবে এতে মতান্তরের কোন কারন নেই, এবং জীবন যেহেতু মিশ্র অভিজ্ঞতায় শিল্পিত হয় তাই এসবই গোটা ক্যানভাস জুড়ে ছিটিয়ে থাকা মিশ্র রঙের দোলাচল। 

একটা অসম্ভব খিদে মন প্রান জুড়ে রয়েছে সবার,  লিখতে হবে – আর এই খিদেটাই বাংলা চর্চার গতিশীলতার সুজন নাইয়া - ছাপার অক্ষরে, ব্লগ’এ,  ই-বইয়ের প্রকাশনায়, এমনকি ফেসবুকের পাতায়। হেলাল হাফিজের কবিতার একটা লাইন মনে আসছে – ভালবাসা যাকে খায় এভাবেই সবটুকু খায় – এই সেই আগ্রাসী ক্ষুধা। 

সমসাময়িক জীবনবাস্তবতা, কাহিনী বিবরণ,  বা শুধুই অনুভুতিময়তার মধ্যবর্তী খাদে বিচরণ এ সব নিয়ে গদ্য দৈনন্দিন বা অপ্রচল সব রকমের ভাষার ব্যবহার সপ্রতিভ ভাবে করছে। থাকছে তার সাথে পদ্ধতিগত পরখ আর নিরীক্ষা, যেটা খুব আশ্বস্ত করে। এরা প্রত্যেকেই এক একজন আবিষ্কর্তা। কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ সঙ্গে এবারে সংযোজিত হচ্ছে চিত্র বিভাগ।  আজকের এই সময়ে যখন বহু আবিষ্কার ছাপার মুখ দেখতে পায় না সেরকম সময়ের সিথানে দাঁড়িয়ে ই-মাধ্যমের ব্যবহারের অনেক উদাহরণ রয়েছে যাতে করে সেই সব আবিষ্কার পাঠক দেখবার পড়বার সুযোগ পাচ্ছে। শব্দের মিছিল সেই রকম ব্যবস্থার একটা সুন্দর প্রমান। 

সবাই পঠন পাঠনের সূত্রে  মতামতের উপহার দিয়ে একে সমৃদ্ধ করুন। এই প্রচেষ্টার কেন্দ্রে রয়েছে অনেক সাধারণ অতি সাধারণ আর অসাধারণ প্লাবনের গল্প। কথা শুধু তার মূল্যায়নেই শেষ হয় না, কারন সব কিছুকে জড়িয়ে চালিকা শক্তি এতজন কবি লেখক সাহিত্যকর্মী র সংবেদনা যেটা অমূল্য। যে কোন মূল্যমান সেই সংবেদনাকে সম্ভ্রম না করে করা হয় না।

সেই সুন্দর মন্ময়তাকে জানাই আন্তরিক অভিবাদন অরুণ বসু’র একটি কবিতার লাইন দিয়ে – 
“ আমার অন্ধতা আমি একদিন পৃথিবীর কাছে রেখে চ’লে যাবো, ভয় হয়;
তা-ই অন্ধতাকে প্রণাম জানিয়ে বলি : মনে রেখো”



অমলেন্দু চন্দ

কটক


Comments
12 Comments

১২টি মন্তব্য:

  1. নবীন প্রতিভাদের সম্মুখে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার যে প্রয়াস শব্দের মিছিলের , একনিষ্ঠ ধারাবাহিকতায় তা বার বার প্রমান করে । ঠিক বলেছেন আপনি কথা শুধু তার মূল্যায়নেই শেষ হয় না ।

    রজত জয়ন্তী সঙ্কলনে শুভেচ্ছা শব্দের মিছিলের সকল সাহিত্যপ্রেমীদের । শুভেচ্ছা সম্পাদক মহাশয়কে , সুন্দর ভাবে বিস্তারিত উপস্থাপনা করার জন্য ।

    উত্তর দিনমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. আন্তরিক শুভেচ্ছা রইল আপনাকে । এইভাবেই পাশে থেকে শব্দের মিছিল কে সমৃদ্ধ করবেন ।

      মুছুন
  2. শব্দের মিছিলের সাথে যেন শিল্পী 'র হাজারো আল্পনা। অভূতপূর্ব একটি সাহিত্য মাধ্যম । লিঙ্ক না পেলে হয়তো না দেখাই থেকে যেতো । রজত জয়ন্তী সঙ্কলনে উপস্থিতি থাকা এবং কিছু লেখা সত্যি অবাক করার মতো । তরঙ্গে ভেসে আসা অনেক ব্লগের মধ্যে শব্দের মিছিলের সার্বিক আয়োজন চোখ ধাধিয়ে দেবার মতো । মানুষের ইচ্ছে শক্তি , ভক্তি শ্রদ্ধা কতদুর নিয়ে যেতে পারে শব্দের মিছিল আজ তার নিজেই নিজের প্রতিদ্বন্দ্বী । মিছিলের যাত্রা শুভ হোক সমাজের জন্য ।

    উত্তর দিনমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. উদীয়মান এই প্রজন্মের লেখক লেখিকাদের আলোকিত করা এবং তাদের সৃষ্টিকে আরও দূর বৃস্তিত করাই আমাদের লক্ষ্য। সামগ্রিক লক্ষ্য ঘুনে ধরা সমাজকে জোড় ধাক্কা দেওয়া ।

      পাশে থাকুন সন্মানিয়া এমন করেই । আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাকে ।

      মুছুন
  3. নতুন বিভাগ আঁকিবুঁকি --- বেশ ভাল।

    উত্তর দিনমুছুন
  4. আপনাদের শব্দের মিছিল ছাপার অক্ষরে পাওয়া যাবে? বাহ বাহ দারুন খবর ----- শুভ কামনা রইল। আমরা কিভাবে পাব পড়তে?

    উত্তর দিনমুছুন
  5. শব্দের মিছিলের উৎসব সংখ্যা আসন্ন প্রকাশিত । আপনি আপনার ঠিকানা পাঠিয়ে দিলেই মুদ্রিত সংখ্যা পৌঁছে যাবে ।

    উত্তর দিনমুছুন
  6. ওই সংখ্যাটি পাবার জন্যে কতো মূল্য দিতে হবে আর ঠিকানা কোথায় পাঠাতে হবে? কতো তারিখে প্রকাশিত হবে সংখ্যাটি?

    উত্তর দিনমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. শারদীয়া এবং ইদুজ্জহা' র মাঝ পর্বেই সম্ভবত প্রকাশ । এখনো মূল্য ধার্য করা হয়নি। ব্লগের ২য় কলামে সরাসরি লিখুন অপশনে বিস্তারিত জানিয়ে দিন । আমরা যথা সময়ে আপনাকে অবহতি করব ।

      ধন্যবাদ সুহৃদ ।

      মুছুন
  7. সংখ্যাটির জন্যে কতো মূল্য দিতে হবে? আর ঠিকানা কোথায় পাঠাতে হবে?

    উত্তর দিনমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. এখনো পর্যন্ত মুল্য ধার্য হয়নি । ব্লগের ২য় কলামে দেখুন '' সরাসরি লিখুন '' অপশন রয়েছে , সেখানে আপনার বিস্তারিত ঠিকানা লিখে মেইল করুন । আপনার মেইল ঠিকানায় বিস্তারিত অবগত করা হবে যথা সময়ে ।


      শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ আপনাকে ।

      মুছুন

সুচিন্তিত মতামত দিন

পাঠক পড়ছেন

 

এই ব্লগটি সন্ধান করুন

■ আপডেট পেতে,পেজটি লাইক করুন।
সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ | আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা
Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Blogger দ্বারা পরিচালিত.