Sunday, March 29, 2020

শর্মিষ্ঠা ঘোষ / করোনা গোটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিল জনস্বাস্থ্য অবহেলা করার ফল।

sobdermichil | March 29, 2020 |

শর্মিষ্ঠা ঘোষ।   দেশের সরকারী ওয়েবসাইট ই দাবী করছে তারা করোনা ভাইরাস এর প্রতিষেধক তৈরীতে অনেকটাই এগিয়ে গেছেন। ভারতে ও গতকাল দেখলাম হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের অণু জীববিদ্যার গবেষক ডাঃ সীমা অনেক অগ্রসর হয়েছেন। কিন্তু সেটা সম্পূর্ণ হয়নি এখনো। প্রচলিত ফ্লু এর ওষুধ থেকে শুরু করে ম্যালেরিয়া এইডস্ টিবি নানা রোগ এর প্রচলিত নানা ওষুধ প্রয়োগে দেখা যাচ্ছে কোন কোন ক্ষেত্রে আংশিক কাজ হচ্ছে। জার্মানির একটি ফার্ম দাবি করেছে তারা ওষুধ আবিষ্কার করেছে। মানবতার শত্রু ট্রাম্প পেটেন্ট নেবার জন্য লাফালাফি করছিল। তারা পাত্তা দেয় নি। জনকল্যাণে তা উৎসর্গ করেছে। কিউবা ও একই পথে হেঁটেছে তাদের ওষুধ এর পেটেন্ট না নিয়ে। তারা মেডিক্যাল কিট ডাক্তার পাঠাচ্ছে নানা দেশের সাহাযার্থে। ট্রাম্প নামের বাঁদরটা ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর দেশগুলোকে কিউবার সহায়তা নিতে বারণ করছে কারণ যে দেশ কে পদানত করতে না পেরে আর্থিক বাণিজ্যিক অবরোধ চাপিয়ে রেখেছে বহুবছর তাদের কাছে ওর নাক কাটা যাচ্ছে। চীন ডিসেম্বর 19 থেকে লড়ে যাচ্ছে। এখনও প্রতিদিন 55 থেকে 75 জন নতুন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে এবং গড় মৃত্যু 5 থেকে 7 জন। তারপরও তারা বিশ্বের 32 টি দেশে তাদের মেডিক্যাল কিট ওষুধ সাহায্য পাঠাচ্ছে। ভারতকেও সাহায্যের প্রস্তাব দিয়েছে। ট্রাম্প নিজে চীনের সাহায্য চেয়ে ওদের প্রেসিডেন্ট কে ফোন করেছে এবং নিজেই ট্যুইট করে আশাব্যঞ্জক কথা হয়ে বলে ধন্যবাদ জানিয়েছে। আমাদের হতভাগ্য আই টি সেল পাগলা নরখাদক ট্রাম্পের কথায় নেচে ঝুড়ি ঝুড়ি গুলগাপ্পা ছড়াচ্ছে। এখনো তাদের কৃতজ্ঞতা বড়দাভাই এর প্রতি যার নির্বাচনী প্রচারে 110 কোটি টাকা ব্যয় করা হয়েছে গুজরাতে নমস্তে ট্রাম্প আয়োজন করতে। মোদী কে ওরা ওদের দেশে নির্বাচনী প্রচার "হাউ ডি মোদী" করতে দিয়েছিল।তখন এন আর সি নিয়ে সেই হলের বাইরে বিক্ষোভ দেখায় কয়েক হাজার আমেরিকান এবং প্রবাসী মানুষ। মিডিয়াতে সচেতন গোটাবিশ্ব ধিক্কার জানায়। ঠিক সেরকম আমেদাবাদের বস্তি ট্রাম্পের থেকে লুকোতে প্রাচীর তুলে সমালোচিত হয় মোদী সরকার। ভক্তরা গরীবী কে চাড্ডির সাথে তুলনা করে। আরে হতভাগা জাঙিয়া দেখানোর জিনিস নয় তা আমব়াও জানি কিন্তু জাঙিয়ার ওপর প্যান্ট এর ব্যবস্থা করাটাও সরকারের কাজ। 

ঠিক যেসময় করোনার বিরূদ্ধে প্রস্তুতির সময় ছিল সেই সময় ভারতে এন আর সি , দিল্লী রায়ট , ১১০ কোটি টাকা খরচ করে ট্রাম্প বন্দনা আমেরিকা থেকে বিশ্বের সর্বোচ্চ মুদ্রার অস্ত্রকেনা মধ্যপ্রদেশের নির্বাচিত সরকারের পতন ঘটাতে ঘোড়া কেনাবেচা জরুরী অবস্হায় বন্ধ হয়ে যাওয়া অধিবেশন কোর্ট দিয়ে খুলিয়ে মধ্যপ্রদেশে ফ্লোর টেস্ট এ কমল নাথ সরকার ফেলে দেওয়া নিয়ে ব্যস্ত ছিল মোদী শাহ | সেই ফাঁকে করোনা থাবা প্রসারিত করে ফেলে ১৩৫ কোটি মানুষের দেশে | ইতিহাসের কলঙ্কিত নায়ক হিসেবে চিন্হিত না হতে হয় আপনাদের মোদী এবং ট্রাম্প |

করোনা গোটা বিশ্বকে দেখিয়ে দিল জনস্বাস্থ্য অবহেলা করার ফল। দেখিয়ে দিল পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে কারবার করা দেশগুলো ও আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হচ্ছে এক অণু জীব এর কাছে। মুহূর্তে পৃথিবী ধ্বংস করার শক্তি রাখা উন্নত বিশ্বের চাড্ডি খুলে গেছে আজ।আমাদের চাড্ডি সেল তো তার কাছে শিশু। রাজা দেখে শেখেনি। রাজা ঠেকে শেখার আগেই লোপাট হয়ে যাবে পৃথিবীর কয়েক মিলিয়ন মানুষ। তার মধ্যে যুদ্ধ বাজ অমানুষ যেমন থাকবে তেমনি মানবিক শান্তিকামীরাও। এটাই দুঃখ। একের পাপের বোঝা অন্যকেও বইতে হচ্ছে। তাও প্রার্থনা মানব সভ্যতার অসুখ সেরে উঠুক সকলের সমবেত প্রচেষ্টায় । আপাততঃ আমরা বর্ডার লেস পৃথিবীর এখনো টিকে থাকা বাসিন্দা। আশা করা যাক তোমার আমার দেখা হবে অন্য সকাল হলে।


Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

 

অডিও / ভিডিও

Search This Blog

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Powered by Blogger.