Sunday, February 17, 2019

পি না কি

sobdermichil | February 17, 2019 |
পি না কি
আমার দেশ ভারতবর্ষ রক্তে স্নান করছে৷ এটা নিয়ে যারা প্রতিবাদ করছেন তাদের বোঝা উচিত সেনাবাহিনীর শহিদ হওয়াটা বড় কোন ব্যাপার নয়৷ এইদেশে সেনাবাহিনীকে খুন করে হত্যা করা মামুলি ঘটনা৷ বরং যারা দেশকে টুকরো- টুকরো করছে তাদের বিরোধীতা করবেন না৷ এদের অধিকার সেনার যোগ্যতা, কর্মদক্ষতার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার৷ সত্যি বলতে ভারতবর্ষে যাদের কিছু করবার থাকেনা, তারাই সেনাবাহিনীতে ভর্তি হয়৷ তানাহলে বছরের পর বছর আপনজনদের ছেড়ে , প্রিয় গ্রাম, পাড়া, পরিবার ছেড়ে ভারতবর্ষের নির্জন, প্রতিকূল অঞ্চলে নিদ্রাহীন, সজাগ হয়ে পাহাড়া দেয়!! আবার কোন সকালে বিস্ফোরিত ধোঁয়ায় স্মৃতি উড়ে যায়৷ এই সব হতভাগ্য পরিবার নিজেদের প্রিয়জনকে কতক্ষণ কাছে পায়? এদের প্রতি আমাদের দেশে একশ্রেণির মানুষ শুরু থেকেই নির্বিকার!! 

আমাদের দেশের এক বিশেষ শ্রেনি আছেন , যাদের চোখে হতভাগ্য সেনাদের আত্মত্যাগটা শুধুই টাকার বদলে জীবন দেওয়া৷ এরা জঙ্গীদের অতীত জীবন বিশ্লেষণ করে দেখান জঙ্গীরা শুরুতে কতটা নিরীহ থাকেন৷ এরা কাশ্মীরে পাথর ছুড়তে থাকা ভীড়কে নিরীহ মনে করেন৷ এনারা শত্রু দেশকে আপন ঘর ভাবেন, তাদের কাছে সেনাবাহিনী না থাকলে জঙ্গীরা আমাদের সাথে প্রেমালাপ করবার সুযোগ পেত৷ সেনাবাহিনী ইচ্ছাকৃত ভাবে সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করছে!শুধু তাই নয় , অন্যায়ের বিচার এইসব বুদ্ধিজীবিদের কাছে মানবতা লঙ্ঘন৷ মানে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করলে , আবার না কফিন কেলেঙ্কারি হয়!! তাই নিরীহ সুবোধ বালকের মতন জঙ্গীদের খুন করতে দাও সেনাবাহিনীকে৷ মানে সেটাই ভালো৷

এরজন্যই বলছিলাম সেনাবাহিনীর জন্য এতো দুঃখ করে লাভ নেই৷ আবার সমস্যা হচ্ছে যদি কেউ সেনাবাহিনীকে হত্যার প্রতিশোধ চায়, তাকে আবার জাতীয়তাবাদী মার্কা রাজনৈতিক দলে ফেলা হবে৷ তার আর বুদ্ধিজীবি হওয়া হবে না৷ 

উফঃ সত্যিকারের বুদ্ধিজীবি হতে সত্যিই অনেক পরিশ্রম করতে হয় ৷ কী ভাবছেন এতো ঝামেলা না করে সেনাবাহিনীর উপর হামলা হলেই চুপ থাকুন! মানবতা দেখান৷ শান্তির কথা বলুন৷ পারলে পাশের বাড়ির ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া ছেলেটির দেহাবশেষের কথা না ভেবে, কাশ্মীরি নিরীহ সুবোধ বালকদের জঙ্গী হয়ে উঠবার জন্য সেনাবাহিনীকে বদনাম করুন৷

ভয় নেই যারা সেনাবাহিনীতে থাকেন, তারা তাদের প্রতীজ্ঞা রক্ষা করবেনই৷ নিজেদের জীবন, মান-অপমান ..তাঁদের জাতীয়তাবাদী বোধের কাছে নগন্য৷ 

আসুন আমরা ওঁদের মতন যখন হতে পারব না, বুদ্ধিজীবি হওয়ার চেষ্টা করি৷ ঘরে যখন ডাকাত আক্রমণ করবে,তখন বৌয়ের সাথে পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করব৷ মানবতা, নরম পৃথিবী মার্কা শব্দে নিজের তৈরী নিরাপদ জগত সৃষ্টি করব৷ আচ্ছা আমরা নিরাপদ তো?

সূত্র -

Comments
0 Comments

-

সুচিন্তিত মতামত দিন

 

অডিও / ভিডিও

Search This Blog

Support : FACEBOOK PAGE.

সার্বিক অলঙ্করণে : প্রিয়দীপ ,আহ্বায়ক : দেবজিত সাহা

Website Published and © by sobdermichil.com

Proudly Hosting by google

Powered by Blogger.